× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২১ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার , ৭ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

পরীমনির আপত্তি

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার
২ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার

ঢাকা বোট ক্লাবে ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টার মামলায় তিনজনকে আসামি করে পুলিশ যে অভিযোগপত্র দিয়েছেন, তাতে এজাহারের অজ্ঞাতপরিচয় আসামিদের নাম না আসায় আদালতে আপত্তি জানিয়েছেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। গতকাল ঢাকার ৯ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে পরীমনির আইনজীবী নারাজি আবেদন করেন। আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত সুরভী মানবজমিনকে বলেন, মামলায় মাত্র তিনজনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দেয়া হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত আরও অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে অভিযুক্ত করা হয়নি। এ কারণে আমরা নারাজি দাখিল করেছি। বিচারক নথি পর্যালোচনা করে এ বিষয়ে আদেশ দেবেন।
গত ৬ই সেপ্টেম্বর এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কামাল হোসেন ঢাকার হাকিম আদালতে অভিযোগপত্র দেন। সেখানে উত্তরা ক্লাবের সাবেক সভাপতি নাসির উদ্দিন মাহমুদ, তুহিন সিদ্দিকী অমি ও শহিদুল আলমকে আসামি করা হয়। মামলায় অভিযোগ গ্রহণের শুনানিতে অংশ নিতে আদালতে হাজির হন চিত্রনায়িকা পরীমনি।
সকাল ১০টার দিকে আদালতে উপস্থিত হন পরীমনি। এদিন ট্রাইব্যুনালে নাসির উদ্দিন মাহমুদ, তুহিন সিদ্দিকী অমি হাজির হয়ে স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। গতকাল সাভার থানার এই মামলায় চার্জশিটের গ্রহণযোগ্যতার বিষয়ে শুনানির দিন ধার্য ছিল। এদিন জামিনে থাকা দুই আসামির পক্ষে আইনজীবী কাওছার হোসেন পূর্বশর্তে জামিনের আবেদন করেন।  জামিন আবেদনের শুনানিতে তিনি বলেন, মামলাটি চার্জশিট গ্রহণের জন্য আছে। আসামিরা আদালতে হাজির হয়েছেন। তারা জামিনে আছেন। যেহেতু মামলাটি ট্রাইব্যুনালে এসেছে তাই আবার তাদের পূর্বশর্তে জামিন প্রার্থনা করছি। অপরদিকে, পরীমনির আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত সুরভী আসামিদের জামিন বাতিলের আবেদন করেন। শুনানিতে তিনি বলেন, আসামিরা বাদী ও সাক্ষীদের ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন। তারা বাইরে থাকলে মামলার বিচারে বিঘ্ন ঘটবে। এজন্য তাদের জামিন বাতিলের আবেদন করছি। শুনানি শেষে বিচারক তাদের জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেন।
পরীমনি তার মামলায় অভিযোগ করেছিলেন, গত ৮ই জুন রাতে তাকে কৌশলে সাভারের বিরুলিয়ায় ঢাকা বোট ক্লাবে ডেকে নিয়ে যান তার পূর্বপরিচিত তুহিন। সেখানে জোর করে তাকে মদ পান করানোর চেষ্টা করেন নাসির। একপর্যায়ে তাকে ধর্ষণ ও হত্যার চেষ্টা চালানো হয়। ঘটনার পাঁচদিন পর গত ১৩ই জুন নিজের ফেসবুক পেজে দেয়া এক পোস্টে প্রথম এ-সংক্রান্ত অভিযোগ প্রকাশ্যে জানান পরীমনি। ১৪ই জুন সাভার থানায় পরীমনি বাদী হয়ে ব্যবসায়ী নাসির ও তুহিনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতপরিচয়ের আরও চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। মামলার আড়াই মাস পর গত ৪ঠা আগস্ট পরীমনির বনানীর বাসায় অভিযান চালায় র?্যাব। পরে তাকে মাদক মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়। এই মামলায় তিন দফায় মোট সাতদিন তাকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। গ্রেপ্তারের ২৭ দিন পর গত ১লা সেপ্টেম্বর পরীমনি কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পান।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর