× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২১ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার , ৭ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

ডিসির অ্যাকশনে বিয়েবাড়িতে আসতে পারেনি বর, বাল্যবিবাহ পণ্ড

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী থেকে
৩ ডিসেম্বর ২০২১, শুক্রবার

নোয়াখালী ডিসি মো. খোরশেদ আলম খাঁনের নির্দেশে কোম্পানীগঞ্জে উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে এক কিশোরীর বাল্যবিবাহ পণ্ড হয়ে গেছে। গতকাল সকালে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জিয়াউল হক মীর। এর আগে বুধবার দুপুরের দিকে উপজেলার চরহাজারী ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের একটি বিয়েবাড়িতে অভিযান চালায় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট ছামিউল ইসলাম। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মানবজমিনকে বলেন, চরহাজারী ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডে একটি বাল্যবিয়ের আয়োজন করার খবর পেয়ে দ্রুত সহকারী কমিশনার (ভূমি) ছামিউল ইসলামকে পুলিশ ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়। ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে কন্যার মা-বাবাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা প্রথমে কন্যার বয়স ১৮ বছর দাবি করে। মেয়ের বয়স প্রমাণে তার জন্মসনদ দেখতে চাইলে তারা জন্মসনদের একটি ফটোকপি দেখায়। পরবর্তীতে সেটি ভুয়া প্রমাণিত হয়। ইউএনও মো. জিয়াউল হক মীর আরও বলেন, তাদের দেখানো জন্মসনদটির সত্যতা যাচাইয়ে চর হাজারী ইউনিয়ন পরিষদে যোগাযোগ করলে জানা যায় ইউনিয়ন পরিষদের রেজিস্ট্রারের রেকর্ড অনুযায়ী মেয়ের বয়স ১৫ বছর ৪ মাস ২৫ দিন।
এরপর মেয়েকে বাল্যবিবাহ দিচ্ছেন বলে স্বীকার করায় ভ্রাম্যমাণ আদালত তাৎক্ষণিক কনের বাবাকে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইনে ৩ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেন। একই সঙ্গে বরপক্ষকে ফোন করে বাল্যবিয়েতে আসতে বারণ করা হয়। পরে কনের মা ১৮ বছর আগে তার মেয়েকে বিয়ে দেবে না মর্মে মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পান। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় সহযোগিতা করেন কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশ।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর