× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২১ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার , ৭ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

আত্মহত্যা করতে চাওয়া ফেসবুক পোস্ট নিয়ে যা বললেন মোস্তাফা জব্বার

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার
৩ ডিসেম্বর ২০২১, শুক্রবার

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এক ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, ‘মন চাইছে আত্মহত্যা করি। একটি চেকে আমি ডিসেম্বর বাংলায় লিখেছি বলে কাউন্টার থেকে চেকটি ফেরত দিয়েছে। কোন দেশে আছি?’ মন্ত্রীর এই পোস্টকে কেন্দ্র করে ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা ৩৯ মিনিটে তিনি পোস্টটি দেন। বিষয়টি নিয়ে তিনি গণমাধ্যমকে জানান, মন্ত্রী তার পরিচিত একজনকে একটি বেয়ারার চেক দিয়ে একটি ব্যাংকের এলিফ্যান্ট রোড শাখায় জমা দিতে বলেন। তবে চেকে ‘ডিসেম্বর’ বানানটি বাংলায় লেখা থাকায় ওই শাখার কাউন্টার থেকে চেকটি প্রথমে ফেরত দেয়া হয়। পরে ওই ব্যক্তি বাসায় ফিরে মন্ত্রীকে বিষয়টি জানান। মন্ত্রী বিষয়টি নিয়ে নিজে ব্যাংকের ওই শাখার বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলেন।
এরপর শাখাটি পুনরায় চেকটি অনার করে।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, আমার হিসাব ব্যাংকটির মতিঝিলের প্রিন্সিপাল শাখায়। আমি চেকে বরাবরই মাসের নাম বাংলায় লিখি। কিন্তু প্রিন্সিপাল শাখায় এ নিয়ে কোনো সমস্যা হয়নি। এবারের চেকেও আমি তারিখটি লিখেছি “০২ ডিসেম্বর, ২০২১”। এটি ছিল বেয়ারার চেক। যাকে চেকটি দিয়েছি, তিনি ব্যাংকটির এলিফ্যান্ট রোড শাখায় জমা দিতে গিয়ে প্রথমে ব্যর্থ হন মাসের নাম বাংলায় লেখার কারণে। পরে আমি যোগাযোগ করায় চেকটি অনার হয়। তবে ওই ব্যাংকটির নাম জানাতে রাজি হননি মন্ত্রী।

এ নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেয়ার কারণ ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, কোনো প্রতিষ্ঠানকে খাটো করতে এই স্ট্যাটাস দিইনি। ভাষার মর্যাদা রক্ষায় এটি করেছি। কারণ, বাংলাদেশই একমাত্র ভাষাভিত্তিক রাষ্ট্র। ভাষার জন্যই এই রাষ্ট্রের জন্ম। আগে প্রযুক্তিগত দিক থেকে বাংলা কিছুটা পিছিয়ে থাকলেও এখন সেই অবস্থা নেই।

তবে পোস্টটি সম্পাদনা করেছেন মন্ত্রী। এতে লিখেছেন, আজ সকালে এক?টি চেকে আমি “ডিসেম্বর” বাংলায় লিখেছি বলে কাউন্টার থেকে চেকটি ফেরত দিয়েছিলো। এরপর সব ঠিক হয়েছে। এটা আমাদেরই বাংলাদেশ। প্রমাণিত হলো ন্যায়সঙ্গত প্রতিবাদ করলে জয়ী হওয়া যায়। সেই চেকের টাকা ভাঙানো হয়েছে। জয় বাংলা।

ওই পোস্টের কমেন্টে মন্ত্রী বলেন, ‘ব্যাংকের নিয়মে বাংলা বিরোধিতার কিছু নেই। এটা ঐ শাখার কিছু লোকের মানসিকতা। কেউ এমন অবস্থায় পড়লে অবশ্যই প্রতিবাদ করবেন। আমি পাশে আছি।’
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
wow
৯ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১২:২৮

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এক ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, ‘মন চাইছে আত্মহত্যা করি'। ---এগুলো একজন দায়িত্ববান মন্ত্রীর ভাষা হতে পারে! উনার কথায় কি আত্মহত্যা কে উৎসাহিত করা হল না? অতীত মন্ত্রী মুরাদ বলে আয় তোকে ধর্ষণ করি। ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর মন বলে আত্মহত্যা করি।

Hasib Ahmed
৬ ডিসেম্বর ২০২১, সোমবার, ১১:১১

চেক পরিপূর্ণভাবে বাংলায় অথবা পরিপূর্ণভাবে ইংরেজিতে লিখতে হবে,অর্ধেক বাংলায় অথবা অর্ধেক ইংরেজিতে লিখা হলে ব্যাংক নিরাপত্তাজনিত কারণে চেকটি অসম্মান করতেই পারে

Shamsunnahar
৩ ডিসেম্বর ২০২১, শুক্রবার, ৭:৪৮

শুনেছি মন্ত্রীমহোদয় নাকি বাংলায় এম এ পাশ তাই উনি বাংলাকে জাহির করতে গিয়ে নিজেই হাসির পাত্র হলেন । চেকে তারিখ লেখার তো ঘরেই কাটা আছে । যেখানে অংকে দিন,মাস আর বছর লিখতে হয় । বংলায় ডিসেম্বর লেখার কোন সুযোগ আছে বলে মনে হয় না । এই জন্য ফেসবুকে আত্মহত্যা করার স্ট্যাটাস দিয়ে কি বুঝাতে চাইছেন উনি সেটাই তো বুঝলাম না।

Wadud
৩ ডিসেম্বর ২০২১, শুক্রবার, ২:৩৮

মন্ত্রী মহোদয় না বুঝে প্রচলিত ব্যাংকিং রীতির বাইরে গিয়ে বাংলা প্রীতি দেখানোর চেষ্টা করেছেন। শেকড় না ধরে শিখরে যাওয়ার চেষ্টা করেছেন।যদি ব্যংকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা চেকটি পাশ করে দিতেন তাহলে অবশ্যই তাকে পরবর্তীতে অডিট টিমের কাছে জবাবদিহিতা করতে হতো কারণ ওই লেখাটা ব্যাঙ্কিং প্রচলিত রীতির বাইরে।

Ziaul Monsur
৩ ডিসেম্বর ২০২১, শুক্রবার, ১২:৪৩

Once I presented a cheque of Tk.1,00,000 to a bank branch which I wrote the amount in words 'One hundred thousand' but it was refused objecting that it was not correct. Teller in the counter insisted on me to amend the cheque by writing 'One lac Taka'. I was unable to make him understand that the term 'lac' was Bangla and it was not correct but the way I wrote is universally accepted and completely correct. I didn't get any solution even contacting with the General Banking Operations Manager of the bank as he was also unfamiliar with it. Later, I had to amend the cheque per their choice. It was really impressed me much realizing the ignorance.

TAWHID MOLLAH
৩ ডিসেম্বর ২০২১, শুক্রবার, ১০:২৭

আজ হাজার চেষ্টার পর ও আমাদের দেশের মূল স্তম্ভ সংবিধানটি এবং আদালতের মামলর নিশ্পত্তির ভাষা যেখানে ইংরেজিতে হয়, সেখানে এটা তো কোন ব্যাপার না। ঐখানে আগে পরিবর্তন করতে হবে তার পর থেকে বাইরে পরিবর্তনের ব্যবস্থা করলে ভাল হয়।

Khaled
২ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৮:০৭

বাংলার প্রতি এত ভালোবাসা থাকলে জিসেম্বর না লিখে বাংলা মাসের নাম লিখতেন.. এটা হলো সস্তা প্রচারনা. অনেকেই অনেক কিছু করছে নিজেদের হাইলাইট করার জন্য তা সবাই বুঝতে পারি, হাসির খোরাকও হয় আমাদের.

Rahman Saifur
২ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৫:২০

এইতো আমরা

Rahman Saifur
২ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৫:১৯

আমি একজন প্রবাসী বাংলাদেশী।দীর্ঘ দিন ইউরোপ বসবাস করি।মনে প্রানে বাংলাদেশী হলেও বিশেষ কারণে লাল পাসপোর্ট ব্যবহার করে থাকি।যাতে বাংলাদে দূতাবাসের ৫ বৎসরের সিল দেয়া থাকে।বিদেশ থাকে বন্ধু আমার জন্য টাকা পাঠিয়েছে।আজ টাকা না উঠলে এলাকা ফেরত যাবে কারণ পরের দিন গত রাত ১২ টায় আমার প্রাইট। আমি মেনেজার সাহেবের রুমে।উনি আমাকে বলে আপনা বাংলাদেশী পাসপোর্ট হলে টাকা উঠতে পারবেন। আমার উওর ছিলো ভাই, আমি যদি সিঙ্গাপুর যাই এ পাসপোর্ট দিয়া টাকা উঠাতে যাই,কতৃপক্ষ যদি বলে সিঙ্গাপুরের পাসপোর্ট লাগবে তখআমি কি করবো।কথার এক পর্যায়ে উনি ডয়ার থেকে পেষ্ট --মুখে নিয়ে ওয়াশ রুমে চলেগেলেন। বিশ্বাস করা যায়! মন্ত্রী সাহেব হয়ত সমাধান করেছেন। সাধারণ মানুষের কি হবে? শিক্ষিত?সুশিক্ষিত !

কদম আলী
২ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১২:০৫

চেকে বাংলা লেখার জায়গা কোথায় মন্ত্রী সাহেব যদি একটু বুঝিয়ে দিতেন ?

অন্যান্য খবর