× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২১ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার , ৭ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

চবি'র প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের আক্ষেপ ঘোচালো বিএসআরএম

শিক্ষাঙ্গন

চবি প্রতিনিধি
(১ মাস আগে) ডিসেম্বর ৫, ২০২১, রবিবার, ৭:৪৫ অপরাহ্ন

করোনা আক্রান্তের হার বেড়ে যাওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় খোলা নিয়ে যখন অনিশ্চয়তা তৈরী হয়েছে,ঠিক তখনি শুনতে পেলাম চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিবন্ধী কর্ণার থেকে বিপুল পরিমাণ ল্যাব সামগ্রী চুরি হয়েছে।বিষয়টি জেনে খুব হতাশ হয়ে পড়ি কারণ আমরা অন্য শিক্ষার্থীদের মত স্বাভাবিকভাবে পড়তে পারিনা। ‘বিএসআরএম’ কর্তৃপক্ষ আজকে আমাদেরকে বিপুল পরিমাণ ল্যাব সামগ্রী দিয়ে আমাদের স্বপ্ন দেখার পথ সুগম করেছে। ‘বিএসআরএম স্টিলস্ লিমিটেড’ এর পক্ষ থেকে ল্যাব সামগ্রী পেয়ে এভাবেই নিজের অনুভূতি জানান দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী খোরশেদ আলম

আজ রোববার, ৫ ডিসেম্বর দুপুর সাড়ে বারোটার দিকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের নিকট এসব সামগ্রী হস্তান্তর করা হয়। ‘বিএসআরএম স্টিলস্ লিমিটেড’ এর পক্ষে এসব সামগ্রী হস্তান্তর করেন বিএসআরএম’র হেড অব সিএসআর তরিখুল কবির। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এসএম মনিরুল হাসান, ভারপ্রাপ্ত গ্রন্থাগারিক কেএম মাহফুজুল হক ও গ্রন্থাগারের সহকারী রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ আহছানুল হক।

জানা যায়, গত ২১ এপ্রিল ২০২০ তারিখে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের প্রতিবন্ধী ই-লার্নিং সেন্টার থেকে ১৪টি কম্পিউটার এবং ৪টির সিপিইউ চুরি হয়ে যায়। এ ঘটনার পর দ্রুত সময়ের মধ্যে ক্ষতি পুষিয়ে নিয়ে ল্যাব পুনরায় সচল করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

ল্যাব পুনরায় সচল হওয়ায় অনুভূতি জানিয়ে প্রতিবন্ধী ছাত্র সমাজ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া বলেন, প্রতিবন্ধী কর্ণার থেকে জিনিস পত্র চুরি হয়ে যাওয়ার পর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তা দ্রুত সময়ের মধ্যে ল্যাব পুনরায় সচল করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। প্রশাসন তাঁদের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করেছে এজন্য আমরা প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানাই। এছাড়াও সার্বিক সহযোগিতার জন্য আমরা ‘বিএসআরএম স্টিলস্ লিমিটেড’ এর প্রতি কৃতজ্ঞ।

এ বিষয়ে বিএসআরএম'র এর হেড অব সিএসআর তরিখুল কবির বলেন, আমরা সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে বিভিন্ন সহযোগিতামূলক কর্মকাণ্ড হাতে নিয়ে থাকি।
এর অংশ হিসেবে আমরা চবি প্রতিবন্ধী কর্ণারে ল্যাব সামগ্রী প্রদান করেছি। আমাদের এমন সহযোগিতামূলক কর্মকাণ্ড ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এসএম মনিরুল হাসান বলেন, করোনার কারণে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকাকালীন গ্রন্থাগারের প্রতিবন্ধী কর্ণার থেকে কিছু সামগ্রি চুরি হয়েছিল। ল্যাব পুনরায় সচল করার লক্ষ্যে এসব চুরি যাওয়া সামগ্রী বিএসআরএমআমাদের কাছে উপহার হিসেবে প্রদান করেছে। এসব সামগ্রী পাওয়ার পর ল্যাব পুনরায় সচল করা হয়েছে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর