× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৫ জানুয়ারি ২০২২, মঙ্গলবার , ১১ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

মেয়ের সামনে মাকে ধর্ষণ, খুলনায় পুলিশের এসআই গ্রেপ্তার

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা থেকে
(১ মাস আগে) ডিসেম্বর ৮, ২০২১, বুধবার, ৮:১৬ অপরাহ্ন

খুলনায় ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে নগর গোয়েন্দা শাখার এসআই জাহাঙ্গীর আলমকে। ভোররাতে তাকে খুলনার যশোর রোডের সুন্দরবন হোটেল থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। সে চুয়াডাঙ্গার বিষ্ণুপুর উপজেলার দামুড়হুদা গ্রামের মো. আতিয়ার রহমানের ছেলে। ভিকটিমকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে সদর থানা পুলিশ।
এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ভিকটিম মোংলা উপজেলার বাজিকর গ্রামের ওই নারী মঙ্গলবার বিকালে মেয়েকে ডাক্তার দেখানোর জন্য খুলনা মহানগরীতে আসেন। কিন্তু ডাক্তারের সিরিয়াল না পেয়ে তার ভাগ্নের পূর্ব পরিচিত মিশারুল ইসলাম মনির আবাসিক হোটেল সুন্দরবনে দু’টি কক্ষ ভাড়া নেয়। একটি কক্ষে মা-মেয়ে ও অপর কক্ষে তার ভাগিনা আলিমুল ইসলাম বাবু অবস্থান নেয়। রাত সোয়া ২টার দিকে গোয়েন্দা শাখার এসআই জাহাঙ্গীর আলম হোটেল বয় গোলাম মোস্তফাকে ডেকে নিয়ে ভিকটিমের (৩১৩নং) কক্ষে ধাক্কা দিতে থাকে।
সে নিজেকে পুলিশের এসআই পরিচয় দিয়ে দরজা খুলতে বলে। দরজা খোলার পর ওই পুলিশ কর্মকর্তা তাকে জিজ্ঞাসা করেন সঙ্গে কে আছে। উত্তরে তিনি জানান, আমার সঙ্গে ১১ বছরের কন্যা রয়েছে। এরপর ওই নারীর সঙ্গে জাহাঙ্গীর আলম অসদাচারণ করতে থাকে। এ সময় চিৎকার শুরু করলে তার মেয়েকে ধর্ষণ করার হুমকি দেয় জাহাঙ্গীর। পরে ভয়ভীতি দিয়ে মেয়ের সামনে মাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে জাহাঙ্গীর আলম। ধর্ষণের পর ভিকটিম চিৎকার করলে হোটেল বয়, অন্যরাসহ হোটেল রুমে থাকা ভাগ্নে উঠে হোটেল মালিককে বিষয়টি জানায়। হোটেলের মেইন গেট বন্ধ করে দেয়া হয়। পরে পুলিশ এসে তাকে গ্রেপ্তার করে। এ ব্যাপারে ভিকটিম বাদী হয়ে খুলনা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
খুলনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসান আল মামুন জানান, মোংলা থেকে ওই নারী মেয়েকে ডাক্তার দেখানের জন্য খুলনা আসেন। তারা হোটেলে অবস্থান নিয়েছিল। রাত আড়াইটার দিকে গোয়েন্দা পুলিশের এসআই জাহাঙ্গীর আলম জোরপূর্বক মা-মেয়ের কক্ষে যান। অসুস্থ মেয়ের সামনে ওই নারীকে ধর্ষণ করে। পরে তার চিৎকারে হোটেলের ম্যানেজার এগিয়ে যান এবং বিষয়টি গোয়েন্দা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে জানান। এরপর খুলনা থানার পুলিশ ওই হোটেল থেকে জাহাঙ্গীরকে  গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
আকাশ
১০ ডিসেম্বর ২০২১, শুক্রবার, ১২:২৭

ধর্ষকের বাড়ীর সামনে একটা সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে দিলে কেমন হয়............... “এটা ধর্ষকের বাড়ী ”।

Sakhawat
৯ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৫:৩৩

জনসমক্ষে ফায়ার করে লাশ গাছে ঝুলিয়ে রাখা হোক, যাতে পাবলিক থুথু দিতে পারে ।

Mozammel
৮ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ১১:৫৩

এসব অমানুষ আর তারছিরা লোকজনের জন্য পুলিশের বদনাম।

Emon
৮ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ১১:১২

সোজা crossfire দেওয়া হোক। এরকম দৃষ্টান্ত সৃষ্টি না করলে ক্ষমতার অপব্যবহার বন্ধ হবে না। যেহেতু এটা হাতে নাতে প্রমানিত তাই আর দেরী না করে এক্ষুনি কার্যকর করা দরকার নয়লে ধর্ষণকারি ক্ষমতার দাপটে মুক্ত হয়ে যাবে।

শাহেদ আলী
৮ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ১১:১০

অপরাধীর এরকম শাস্তি চাই যে আর কোন অপরাধী এই ধরনের অপরাধ করার সাহস না পায়।

Md. Shariful Islam
৯ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১২:০৪

আল্লাহ আমাদের সকলকে হেদায়েত দান করুন। সরকারের গণপ্রজাতন্ত্রের কর্মচারী হিসেবে আল্লাহ যেনো সকল সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং আমলাদের বিবেককে জাগ্রত করে দেয়। কারণ আমাদের কৃতকর্মের জন্য কেয়ামতের মাঠে আল্লাহর সামনে জবাবদিহি ব্যতিত জান্নাতে যাওয়ার সুযোগ নেই।

মোঃ মহিউদ্দিন মুন্সি
৮ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ১০:১৩

অযোগ্য ও অসৎ লোকগুলো নিয়োগ পেলে যা হওয়ার তাই হয়েছে।

SAYED KHAJA MAIN UDD
৯ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১০:৫৩

পুলিশের ফাসি চাই, সে কোন মানুষ না , সে পশুর চেয়েও অধম, অসুস্থ নিস্পাপ ছোট বাচ্চার সামনে ধর্ষন এটা মেনে নেওয়া যায় না। তার ভিতরে মানবতা বলে কিছু নেই।, তার বেচে থাকার কোন অধিকার নেই।

salam
৯ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৮:২৭

এদেশের পুলিশ কি জনবান্ধব হবে না!

Ashraful Alam
৮ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ৪:৫১

চাকরির ক্ষেত্রে যোগ্যতা যাচাই মেধা নয় কোন দল করে আর এজন্য ই আজ যারা মানুষের জান মাল হেফাজতের দায়িত্ব নিবে বলে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ তারাই জনগণের ক্ষতি করছে

Islam
৮ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ২:৪৮

পুলিশ পারে না এমন কিছু নাই।

Nayeem
৮ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ১২:৫৯

ভয়ংকর ও বিভৎস। জবাবদিহিতার কতটুকু উর্ধ্বে থাকলে পুলিশের একজন কর্মকর্তা সন্ত্রাসীর মতো এমন অপরাধ ঘটাতে পারে!?

reem
৯ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১২:৫৮

ওকে জনসম্মকে ফাসি দেওয়া /

ezana huda
৯ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১২:৫১

This is called Awami Police which was deployed by Awami Leager.

Faruki
৮ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ১০:২০

কিছু পুলিশ সদস্য অপরাধ করছে .কড়া শাস্তি দিতে হবে .সাসপেন্ড করার দরকার নেই

Mohammad Sorwar
৮ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ৯:৪৯

Government should allow here Cross fire

Mahbub
৮ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ৯:২০

এই জানোয়ারের ক্রশ ফায়ার চাই।

Siddq
৮ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ৮:৫২

এরা আমাদের কে আমাদের জাতিকে কোথায় নিয়ে যাচ্ছে? এদেরকে চিরতরে খোঁজা করে দেয়ার জন্য প্রস্তাব রাখছি।

Shobuj Chowdhury
৮ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ৯:৩৭

These police and politicians are destroying the country. The people can't sleep anymore.

অন্যান্য খবর