× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৫ জানুয়ারি ২০২২, মঙ্গলবার , ১১ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

বাংলাদেশের আগাম দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস ব্যবস্থা প্রশংসিত: দুর্যোগ সচিব

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার
(১ মাস আগে) ডিসেম্বর ৮, ২০২১, বুধবার, ৮:৫৩ অপরাহ্ন

 বাংলাদেশের আগাম দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস ব্যবস্থা গ্লোবাল ডায়লগ প্ল্যাটফর্ম অন অ্যান্টিসিপেটরি হিউম্যানিটারিয়ান অ্যাকশন ২০২১ আন্তর্জাতিক সম্মেলনে প্রশংসিত হয়েছে।  অ্যান্টিসিপেশন হাব- এর আয়োজনে, ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম (ডব্লিউএফপি) এবং ফুড এন্ড এগ্রিকালচারাল অর্গানাইজেশন (এএফএও)’র সহায়তায় বুধবার অনলাইন প্ল্যাটফর্মে এ আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোহসীন সম্মেলনের ‘অ্যাডভান্সিং এন্টিসিপেটরি অ্যাকশন এট দ্যা ন্যাশনাল লেভেল’ শীর্ষক সেশনে কী-নোট বক্তব্য প্রদান করেন। দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাসে অ্যান্টিসিপেটরি অ্যাকশন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। যেকোন দুর্যোগের আভাস পাওয়ামাত্র প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি গ্রহণসহ দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদি, ত্রাণ সামগ্রী সম্ভাব্য দুর্যোগ ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় প্রেরণ করাই অ্যান্টিসিপেটরি অ্যাকশনের মূল ধারণা। অ্যান্টিসিপেটরি অ্যাকশনের ফলে দুর্যোগে জীবন ও সম্পদের ক্ষতি উল্লেখযোগ্য পরিমাণে হ্রাস পায়।  এই সেশনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ৫০ বছর আগে সর্বপ্রথম দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস ধারণাটির সাথে পরিচয় করিয়ে দেন, যা সারা বিশ্ব অনুসরণ করছে। বঙ্গবন্ধুর দেখানো পথ অনুসরণ করে তার সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুর্যোগ সহনশীল জাতি বিনির্মাণে দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাসে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেন। তারই ফলশ্রুতিতে বাংলাদেশ আজ বিশ্বে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় রোল মডেল হিসেবে স্বীকৃত। সম্মেলনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব বাংলাদেশের আগাম ঝুঁকি হ্রাস ব্যবস্থা নিয়ে তার অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন।
এ ছাড়া আগাম ঝুঁকি হ্রাস ব্যবস্থা কীভাবে দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাসে ভূমিকা পালন করে সেই বিষয়টিও তুলে ধরেন। ডব্লিউএফপি বাংলাদেশের ডেপুটি কান্ট্রি ডিরেক্টর পিয়েট ভচেন বাংলাদেশের এই আগাম দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস ব্যবস্থার প্রশংসা করেন। সেমিনারে আরো বক্তব্য রাখেন ডব্লিউএফপি বাংলাদেশের প্রোগ্রাম অফিসার নিগার দিল নাহার, ইউএন রেসিডেন্ট কোঅর্ডিনেটর অফিস বাংলাদেশের হিউম্যানিটারিয়ান অ্যাফেয়ার্স স্পেশালিস্ট কাজী শহীদুর রহমান এবং স্টার্ট নেটওয়ার্ক বাংলাদেশের ফোর ওয়ার্ন কোঅর্ডিনেটর আশরাফুল হক ।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর