× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৫ জানুয়ারি ২০২২, মঙ্গলবার , ১১ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

সাইকেল র‍্যালিতে নিরাপদ সড়কের দাবি

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার
৯ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার

সড়কে অব্যবস্থাপনার প্রতিবাদ, নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতের দাবি ও নিহত শিক্ষার্থীদের স্মরণে সাইকেল র‌্যালি করেছেন শিক্ষার্থীরা। রাজধানীর রামপুরা থেকে শুরু করে নটর ডেম কলেজ পর্যন্ত পূর্ব 
ঘোষণা অনুযায়ী এ কর্মসূচি পালন করেন তারা। এ সময় পুলিশের বাধার মুখে পড়েন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। গতকাল বিকাল তিনটায় এই কর্মসূচি শুরু হয়। শুরুতে পুলিশ শিক্ষার্থীদের বাধা দেন। এ সময় পুলিশের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের যুক্তিতর্ক ও বাকবিতণ্ডা হয়। বিকাল তিনটার দিকে ২০-২৫ জন শিক্ষার্থী রামপুরা ব্রিজে জড়ো হন। এবং ৯-১০টি সাইকেল নিয়ে নটর ডেম কলেজের উদ্দেশে রওনা দেন।
এ সময় পুলিশ এসে তাদের রাস্তা পারাপারে বাধা দেন। প্রায় ঘণ্টাখানেক পুলিশের সঙ্গে যুক্তিতর্ক ও বাকবিতণ্ডার ঘটনা ঘটে। পরে শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণ ও শৃঙ্খলভাবে কর্মসূচি পালনের শর্তে রাস্তা ছেড়ে দেয় পুলিশ। এরপর শিক্ষার্থীরা তাদের কর্মসূচি সফল করতে রামপুরা থেকে সাইকেল র‌্যালি নিয়ে নটর ডেম কলেজের সামনে জড়ো হন। সেখানে নিরাপদ সড়কের দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান ও দাবির কথা তুলে ধরেন তারা। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে কেন্দ্র করে কর্মসূচি শুরু হওয়ার আগেই নটর ডেম কলেজের সামনে পুলিশ সদস্যদের অবস্থান নিতে দেখা গেছে। সেখানে পুলিশ পাহারায় শিক্ষার্থীরা তাদের কর্মসূচি বিকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে শেষ করেন। এবং পরবর্তী কর্মসূচির ঘোষণা দেন।
আন্দোলনে নেতৃত্ব দেয়া খিলগাঁও মডেল কলেজের শিক্ষার্থী ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট নেত্রী সোহাগী সামিয়া বলেন, সড়কে নৈরাজ্যের প্রতি মানুষের মনে ঘৃণা জন্মেছে ও আমাদের আন্দোলনে সাধারণ শিক্ষার্থীদের সমর্থন রয়েছে। যতদিন পর্যন্ত আমাদের দেশে নিরাপদ সড়ক স্থাপন করা না হবে, ততদিন পর্যন্ত আমাদের এই আন্দোলন চালিয়ে যাবো। বৃহস্পতিবার আমরা নিরাপদ সড়কের দাবিতে লিফলেট নিয়ে মানুষের দ্বারে দ্বারে পৌঁছে দিবো। আমরা জনগণের মতামত ও সমর্থন আদায় করতে চাই। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী মঙ্গলবার শিক্ষার্থীরা নিহত মাঈনুদ্দিনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান একরামুন্নেছা থেকে শুরু করে গুলিস্তান নিহত নাঈমের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নটর ডেম কলেজ পর্যন্ত সাইকেল র‌্যালি কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেন। এর আগে সড়কে অনিয়ম-অব্যবস্থাপনার প্রতিবাদে লাল কার্ড প্রদশন, কফিন মিছিল ও ব্যঙ্গচিত্রসহ ব্যতিক্রমী কর্মসূচি পালন করেছেন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা। এই কর্মসূচি থেকে সড়ক ব্যবস্থায় বিদ্যমান অনিয়ম দুর্নীতির প্রতিবাদ জানিয়েছেন। সড়কে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়ার দাবিতে প্রায় তিন সপ্তাহ থেকে আন্দোলন চলছে। ২৪শে নভেম্বর সিটি করপোরেশনের গাড়ির ধাক্কায় প্রাণ হারান নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসান। এরপর গত সোমবার সড়কেই প্রাণ হারান একরামুন্নেছা স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী মাইনুদ্দিন ইসলাম দুর্জয়। এই দুই মৃত্যুর ঘটনায় হাফ পাসের আন্দোলন নিরাপদ সড়ক আন্দোলনে রূপ নেয়।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর