× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ১৮ মে ২০২২, বুধবার , ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৬ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

এফডিসিতে বহিরাগতদের প্রবেশ, নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন শিল্পীরা

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার
১৬ জানুয়ারি ২০২২, রবিবার

আগামী ২৮ জানুয়ারি এফডিসিতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বাংলাদশে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের দ্বিবার্ষিক নির্বাচন। আর এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এফডিসিতে প্রতিদিন যেনো তারকাদের মেলা বসছে। প্রতিদিন সকাল থেকে রাত অব্দি তারা অবস্থান করছেন এখানে। সহকর্মী ভোটাদের কাছে চাইছেন ভোট, দিচ্ছেন আড্ডা। তবে এই নির্বাচন উপলক্ষে এফডিসিতে বেড়েছে বহিরাগতদের প্রবেশ। সরেজমিনে শনিবার সন্ধ্যায় কয়েক শ’ বহিরাগত দেখা গেলো এফডিসিতে। কেপিআইভুক্ত এলাকায় এতো পরিমাণ বহিরাগতদের প্রবেশে করোনা ছড়ানোসহ নানা আতঙ্কে ভুগছেন শিল্পীরা। তারা বলছেন, এফডিসিতে অপরিচিত মানুষের আনাগোনা বেড়েছে।
এতে করে তারা আতঙ্কে রয়েছেন। ভুগছেন নিরাপত্তাহীনতায়। এছাড়াও নির্বাচন উপলক্ষ্যে বহিরাগত লোকজন এনে ভোটারদের প্রভাবিত এবং আতঙ্ক সৃষ্টির অভিযোগ করেছেন অনেকেই। বিষয়টি নিয়ে শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী জায়েদ খান মানবজমিনকে বলেন, খুব দুঃখিত আজকের অবস্থা দেখে। শিল্পীদের নির্বাচনে শিল্পীরা আসবে। বাইরের লোক কেন আসবে! বিকেলে আসার পর এতো বহিরাগতদের অনাগোনা। শিল্পীরা হাটতেই পারছি না। আমার দুজন প্রার্থী অঞ্জনা ও সুচরচিতা আপা গাড়ি ঘুরিয়ে চলে গেছেন। এতো লোক, ধাক্কাধাক্কি হচ্ছে রীতিমতো। গরুর হাটের মতো অবস্থা! এরকম হলে নির্বাচন করাই কঠিন হয়ে যাবে। সবাই নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। নির্বাচন কমিশন এবং এফডিসি কতৃপক্ষদের কাছে জোর অনুরোধ করছি এই বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য। বিষয়টি নিয়ে শিল্পী সমিতির ইলেকশন কমিশনকে মৌখিক অভিযোগওে করেছেন দুইবারের শিল্পী সমিতির এই নেতা। পাশাপাশি আজ এফডিসির এমডি নুজহাতের কাছে লিখিত অভিযোগ করবেন বলেও জানালেন। একই অভিযোগ করলেন শিল্পী সমিতির এবারের নির্বাচনে ইলিয়াস কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেলের সহ-সাধারণ সম্পাদকপ্রার্থী চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক। তিনি বলেন, এফডিসিতে প্রচুর বাইরের লোক প্রবেশ করছে। এতে করে আমাদের শিল্পীদের চলাচলে সমস্যা দেখা দিচ্ছে। ভোটের প্রচারণার চেয়ে সেলফিতে বেশি সময় দিতে হয়। এতে করে আমাদের ভোটের প্রচারণায় প্রচুর সমস্যা করছে। বিষয়টি নিয়ে আমরা এফডিসির এমডি মহোদয়ের কাছে গিয়েছিলাম। তাকে বিষয়টি অবগত করার পর তিনি বলেন, দেখুন এফডিসিতে তো আমাদের কনস্ট্রাকশনের কাজ হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে আমাদের গেইট ওপেন রাখতে হচ্ছে। তাই সাধারণ মানুষদের প্রবেশ ঠেকানো সম্ভব হচ্ছে না। সাইমন আরও বলেন, দিন দিন শিল্পীদের উপস্থিতি এফডিসিতে বাড়বে। এভাবে সাধারণ মানুষের প্রবেশ ঠেকানো না গেলে আমরা এফডিসিতে চলতেই পারবো না। বিষয়টি এফডিসির এমডিকে জানালে তিনি বলেছেন এ বিষয়ে আমাদের আপাতত আর কিছুই করার নেই।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর