× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ১৯ মে ২০২২, বৃহস্পতিবার , ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৭ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

কলকাতা কথকতা   /বঙ্গ বিজেপিতে বিদ্রোহের আগুন, বিক্ষুব্ধদের শ্যামাপ্রসাদ মঞ্চ গড়ার আহ্বান

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা
(৪ মাস আগে) জানুয়ারি ১৬, ২০২২, রবিবার, ৭:৪০ অপরাহ্ন

বঙ্গ বিজেপি কি ভেঙে দু' টুকরো হতে চলেছে? হালচাল দেখে তাই মনে হচ্ছে। শনিবার কলকাতার পোর্ট ট্রাস্ট গেস্টহাউসে বিক্ষুব্ধদের একটি বৈঠকে আলাদা করে শ্যামাপ্রসাদ মঞ্চ গড়ার ডাক দেয়া হয়। রবিবার উত্তর চব্বিশ পরগনার মতুয়া মহাসংঘে অনুষ্ঠিত আর একটি সভায় দিকে দিকে আন্দোলন ছড়িয়ে দেয়ার ডাক দেয়া হয়েছে। দুটি সভাতেই মুখ্য ভূমিকায় ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শান্তনু ঠাকুর। কলকাতা পোর্ট ট্রাস্ট গেস্টহাউসের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির বিভিন্ন পদ ও কর্ম সমিতি  থেকে বাদ পড়া সায়ন্তন বসু, জয়প্তকাশ মজুমদার, প্রতাপ চট্টোপাধ্যায়, রিতেশ তেওয়ারি, সুব্রত ঠাকুরের মতো নেতারা।  যেভাবে রাজ্য বিজেপি চলছে তাতে ক্ষোভ প্রকাশ করে আলাদা মঞ্চ গড়ার কথা বলা হয়।  রবিবার দুপুরে ঠাকুরনগরে মতুয়া মহাসংঘতে অনুষ্ঠিত একটি বৈঠকে শান্তনু ও সুব্রত ঠাকুরের সঙ্গে যোগ দেন বিজেপির তিন মতুয়া বিধায়ক।  কেন্দ্রীয় সরকার সি এ এ লাগু করছে না বলে ক্ষোভ জানান।
কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শান্তনু ঠাকুরও জানান যে, তিনিও কেন্দ্রের ওপর ক্ষুব্ধ সিএএ চালু না হওয়ায়। দিকে দিকে এই নিয়ে আন্দোলন গড়ার ডাক দেয়া হয়।  আজ বিকেলে বিজেপির ডাকা এক সাংবাদিক সম্মেলনে দলের মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য বলেন, বিজেপিতে বিক্ষুব্ধ বলে কিছু হয় না।  প্রধানমন্ত্রী মোদি নিজে মতুয়া মহাসংঘ গিয়ে কথা দিয়ে এসেছেন সিএএ চালু হবে, তা হবেই। বর্তমান কোভিড পরিস্থিতিতে তা সম্ভব নয় বলেই হয়নি। দুহাজার চব্বিশের আগেই হবে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর