× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২৫ মে ২০২২, বুধবার , ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৩ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

লীগে নিজেদের ভেন্যুতেই খেলবে বসুন্ধরা কিংস

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার
১৯ জানুয়ারি ২০২২, বুধবার

ইন্দোনেশিয়ায় দুটি ফিফা ফ্রেন্ডলি খেলার কথা ছিল বাংলাদেশের। জাতীয় দলের  সকল ফুটবলার করোনার টিকা না নেয়ায় শেষ মুহূর্তে বাতিল হয়েছে ম্যাচ দুটি। জাতীয় দলের ম্যাচ বাতিল হওয়ায় লীগ এগিয়ে আনার কথা শোনা যাচ্ছিল। কিন্তু গতকাল বাফুফের পেশাদার লীগ কমিটির সভায় লীগ এগিয়ে আনার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। পূর্ব ঘোষিত ৩রা ফেব্রুয়ারি শুরু হবে প্রিমিয়ার লীগের ১৪তম আসর। তবে লীগের সূচিতে বদল না এলেও ভেন্যু আগের চেয়ে বেড়েছে। আগে ছিল ৬টি ভেন্যু। এখন নতুন করে যোগ হয়েছে বসুন্ধরা স্পোর্টস কমপ্লেক্স।
নিজেদের মাঠেই এবারের লীগ খেলবে বসুন্ধরা কিংস।
গতকাল লীগ কমিটির সভায় বসুন্ধরা স্পোর্টস কমপ্লেক্স আসন্ন লীগের ভেন্যু হিসেবে বিবেচিত হয়। বাফুফের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও লীগ কমিটির চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মুর্শেদী বলেন, ‘ঢাকার বাইরে ছয়টি ভেন্যুর সঙ্গে এবার বসুন্ধরা স্পোর্টস কমপ্লেক্স থাকছে। বাফুফের একটি প্রতিনিধি দল গিয়ে মাঠ, যাতায়াত ব্যবস্থা, প্রেসবক্স, গ্যালারি সবকিছু পুঙ্খানুপুঙ্খ দেখেছে। কিছু কাজ বাকি রয়েছে যেটা এই মাসের শেষ নাগাদ সম্পন্ন হবে।’ আগামী ২৫শে জানুয়ারি বাফুফে প্রতিনিধি দল পরিদর্শন করবে। পরিদর্শনের পর তারা আরেকটি প্রতিবেদন দেবে। বসুন্ধরা স্পোর্টস কমপ্লেক্স আবাসিক এলাকার মধ্যে। জনসাধারণের প্রবেশাধিকারে কিছুটা নিয়ম নীতি রয়েছে। ফুটবল ম্যাচের সময় বসুন্ধরার নিয়ম-নীতির শিথিল থাকবে জানিয়ে লীগ কমিটির চেয়ারম্যান জানান, ‘এই ব্যাপারে আমাদের সঙ্গে কথা হয়েছে বসুন্ধরা কিংসের প্রতিনিধির সঙ্গে। ফুটবল সমর্থকরা যেন নির্বিঘ্নে খেলা দেখতে পারে সেই ব্যবস্থা তারা করবেন।’ লীগ কমিটির সভায় বসুন্ধরা কিংসের প্রতিনিধি হিসেবে ছিলেন আহমেদ শায়েক। তিনি তাদের কমপ্লেক্স ও ম্যাচের সার্বিক বিষয়ে বলেন, ‘আমাদের গ্যালারির ধারণক্ষমতা মূলত ১৪ হাজার। তবে এখন আপাতত ১০ হাজার। এর মধ্যে সাত শতাংশ অ্যাওয়ে দলের জন্য থাকবে। সেভাবে গ্যালারি করা হয়েছে। কমপ্লেক্সের আনুষাঙ্গিক কাজ কিছুদিনের মধ্যেই সম্পন্ন হবে। বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় প্রবেশের পর আমাদের লোকবল থাকবে ফুটবলপ্রেমীদের গাইড দিয়ে কমপ্লেক্সে প্রবেশের জন্য।’ সবকিছু ঠিক থাকলে দেশের প্রথম ক্লাব হিসেবে চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস নিজেদের স্পোর্টস কমপ্লেক্সকে হোম ভেন্যু হিসেবে পাচ্ছে। কুমিল্লার শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামকে স্বাগতিক হিসেবে বেছে নিয়েছে ঢাকা মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। যদিও মাঠের কিছু সমস্যা থাকার কারণে এখানে লীগের প্রথম পর্ব হওয়ার সম্ভাবনা কম। এদিকে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে সংস্কারের কারণে প্রিমিয়ার লীগের জন্য বাফুফের কাছে সিলেট ভেন্যুকে চেয়েছে চলতি মৌসুমের স্বাধীনতা কাপ ও ফেডারেশন কাপ জয়ী ঢাকা আবাহনী লিমিটেড। আবাহনীর ম্যানেজার সত্যজিত দাশ রুপু বলেন, ‘সিলেটকে আমাদের হোম ভেন্যু হিসেবে পাওয়ার জন্য আবেদন করেছি এবং আমরা সেটাই পছন্দ করছি। মূলত এএফসি কাপেও যেহেতু আমরা অংশ নিবো। এএফসি কাপের ভেন্যু হচ্ছে সিলেট। লীগের ভেন্যু আর এএফসি কাপের ভেন্যু আমরা সিলেট করতে চাই। এর বাইরে এবারের লীগে ভেন্যু হিসেবে থাকছে  রাজশাহীর শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্টেডিয়াম, মুন্সিগঞ্জের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ লে. মতিউর রহমান স্টেডিয়াম, গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়াম ও টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ স্টেডিয়াম।  
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর