× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ১৯ মে ২০২২, বৃহস্পতিবার , ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৭ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

জাকার্তা আর ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী নয়

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(৪ মাস আগে) জানুয়ারি ১৮, ২০২২, মঙ্গলবার, ৮:২১ অপরাহ্ন

জাকার্তা আর ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী নয়। দেশটি নুসানতারাকে এর নতুন রাজধানী হিসাবে ঘোষণা করেছে। এটি কালিমান্তান প্রদেশের একটি জঙ্গলে ঘেরা এলাকা। এখানেই গড়ে তোলা হবে ইন্দোনেশিয়ার নতুন রাজধানী শহরটিকে। এ খবর দিয়েছে সিএনএন।

খবরে জানানো হয়, নতুন ওই শহরটির আয়তন হবে ২ হাজার ৫৬১ বর্গকিলোমিটার। এর পুরো এলাকাই বন কেটে তৈরি করা হবে। দেশটির আইন প্রণেতারা সরকারের কাছে এর পরিবেশগত প্রভাব বিবেচনায় নেয়ার আহ্বান জানিয়ে আসছেন। তবে মঙ্গলবার পার্লামেন্টে পাশ হওয়া নতুন আইন প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদোর উচ্চাভিলাষী ৩২ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলারের মেগাপ্রকল্প বাস্তবায়নের আইনি বৈধতা দিলো।


মূলত ইন্দোনেশিয়ার বর্তমান রাজধানী জাকার্তা জলবায়ুর বিরূপ প্রভাবের শিকার। জলবায়ু পরিবর্তনজনিত কারণে সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা দিন দিন বেড়ে যাওয়ায় শহরটি প্রতিবছর একটু একটু করে ডুবে যাচ্ছে জাভা সাগরে। শহরটিতে প্রায় সারাবছর বন্যা লেগে থাকে। এছাড়াও রয়েছে অধিক জনসংখ্যার চাপ। প্রায় ১ কোটি জনসংখ্যার কারণে শহরটি হয়ে গেছে ঘনবসতিপূর্ণ। ফলে দিন দিন শহরে নাগরিক সুযোগ সুবিধার ঘাটতি বাড়ছে। দেশের প্রশাসনিক কাজ চালাতে হিমশিম খাচ্ছেন কর্মকর্তারা।

এসব বিবেচনা করে ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট উইদদো ২০১৯ সাল তার দেশের রাজধানী বদলের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন। এর আগে তিন বছর টানা গবেষণা, পরীক্ষা ও জরিপ চালিয়ে রাজধানী হিসেবে বোর্নিও দ্বীপের পূর্বাংশকে বেছে নেয় দেশটির সরকার। নতুন রাজধানীকে উপযোগী করে গড়ে তুলতে খরচ হবে ৩৩ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলার। প্রায় ১০ লাখ নাগরিকের আবাসস্থল করার পরিকল্পনা রয়েছে সেখানে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
* মুঃওয়াসিউল হক
১৮ জানুয়ারি ২০২২, মঙ্গলবার, ৮:৫০

বাঙলার রাজধানী "গৌড়কে" পুনরায় রাজধানী হিসাবে ঘোষণা করাহোক।

Kazi
১৮ জানুয়ারি ২০২২, মঙ্গলবার, ৮:৩৮

রাজধানী যেখানে যাবে মানুষের ভীড় ও সেখানে বাড়বে ।

Nurun Nabi
১৯ জানুয়ারি ২০২২, বুধবার, ৮:০৩

I hope Environment expert will tell what this new Capital mean for future. This needs a thorough study.

অন্যান্য খবর