× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২০ মে ২০২২, শুক্রবার , ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৮ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করতে ঢাকায় যাচ্ছে না শাবির আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা

অনলাইন

শাবি প্রতিনিধি
(৩ মাস আগে) জানুয়ারি ২১, ২০২২, শুক্রবার, ৮:৫৩ অপরাহ্ন

ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবির বিষয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের সাথে আলোচনা করতে চান শিক্ষামন্ত্রী। কিন্তু শুক্রবার সন্ধ্যায় অনশনকারী শাহরিয়ার আবেদিন জানিয়েছেন, তারা ঢাকায় আলোচনার জন্য যাবেন না। শিক্ষামন্ত্রীকে ক্যাম্পাসে আসার জন্য বা অনলাইনে আলোচনা করার জন্য আহ্বান জানান তিনি।

শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে অনশনকারী শাহরিয়ার আবেদিন সংবাদ সম্মেলন করে এই তথ্য জানান।

তিনি বলেন, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি মহোদয় আমাদের সাথে কথা বলতে চেয়েছেন, এতে আমরা কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছি। অনশনকারী অনেকের অবস্থা ভালো না থাকায় তাদের সাথের শিক্ষার্থীরা ঢাকা যেতে চাচ্ছে না। আমরা উনাকে অনুরোধ জানাচ্ছি যাতে উনি ক্যাম্পাসে এসে আমাদের দেখে যান এবং এখানে এসে আলোচনা করেন। যদি আসা সম্ভব না হয় তাহলে আমরা অনলাইনে মিটিং করতে আগ্রহী।
জাতিসংঘ ও বাংলাদেশ সরকারসহ বিভিন্ন জায়গায় অনলাইনে ফলপ্রসূ মিটিং হয়েছে। তাই আমরা বিশ্বাস করি, আমরাও অনলাইনে মিটিং করলে ফলপ্রসূ হবে।

এদিকে শুক্রবার দুপুরে শিক্ষামন্ত্রীর আলোচনার বার্তা নিয়ে ক্যাম্পাসে আসেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল। শুক্রবার দুপুর ৩টায় শিক্ষার্থীদের সাথে মোবাইলে কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। ঢাকায় গিয়ে শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধি দলের আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু শিক্ষার্থীরা নিজেদের মধ্যে আলোচনা শেষে ঢাকায় না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

বিকেলে শফিউল আলম চৌধুরী নাদেলের মাধ্যমে মোবাইলে শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মহিবুল আলমও শিক্ষামন্ত্রীর সাথে কথা বলেন এবং শিক্ষকদের একটি প্রতিনিধি দল যাবে বলে জানান।

এছাড়া প্রতিনিধি দল ঠিক করার জন্য শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের গোলচত্বরে আলোচনা করেন। আলোচনা শেষে শফিউল আলম চৌধুরী নাদেলকে তাদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেন।

এসময় নাদেল বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের বলেছি তারা যেন ঢাকায় গিয়ে শিক্ষামন্ত্রী মহোদয়ের সাথে কথা বলেন। উনি আলোচনা করতে চান। ঢাকায় যাওয়ার সকল ব্যবস্থা মন্ত্রী করে দিবেন বলে জানান তিনি। তবে শিক্ষার্থীরা না গেলে শিক্ষামন্ত্রী আসবেন, কিন্তু ১/২ দিন পরে আসলে অনেক ক্ষতি হয়ে যাবে। তাই আমরা আহবান জানিয়েছিলাম তারা যেন ঢাকা যায়।

এদিকে গুরুতর অসুস্থ অনশনরত ১২ শিক্ষার্থীকে সিলেটের বিভিন্ন হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এদের মধ্যে থেকে রাফি নামে এক শিক্ষার্থী আবারও অনশন স্থলে ফিরে এসেছে। শুক্রবার দুপুর ২টায় সে ভিসির বাস ভবনের সামনে অনশনস্থলে ফিরে আসে।

ভিসির পদত্যাগের বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত না আসায় অনশন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Shafi
২১ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার, ১০:৩৩

আমরা সিলেট বাসি জানিনা কেন অযতা এই আন্দোলন।

MD. Kamran
২১ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার, ৮:৫৭

কোমলমতি !!

Amirswapan
২১ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার, ৮:০৫

কোমলমতিদের কোন ক্ষতি হওয়ার আগেই সমস্যার সমাধান হওয়া জরুরী।

অন্যান্য খবর