× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২২ মে ২০২২, রবিবার , ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২০ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

পাকুন্দিয়ায় বিদ্রোহীতে বিভক্ত আওয়ামী লীগ

বাংলারজমিন

আশরাফুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ থেকে
২৩ জানুয়ারি ২০২২, রবিবার

আগামী ৩১শে জানুয়ারি কিশোরগঞ্জ জেলার পাকুন্দিয়া উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। উপজেলার নয়টি ইউনিয়নেই মাঠে রয়েছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীরা। তিন বর্তমান চেয়ারম্যানও রয়েছেন বিদ্রোহী প্রার্থীদের এই তালিকায়। পাকুন্দিয়া উপজেলার নয়টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মোট ৫৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাদের মধ্যে দলীয় প্রার্থী ২০ জন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ৩৩ জন। দলীয় প্রার্থীদের মধ্যে ৯টি ইউনিয়নেই আওয়ামী লীগ প্রার্থী, ৭টি ইউনিয়নে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ প্রার্থী, ৩টি ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির প্রার্থী এবং ১টি ইউনিয়নে জাসদ প্রার্থী রয়েছেন। ৩৩জন স্বতন্ত্র প্রার্থীর মধ্যে ১৩ জন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী এবং ৭ ইউনিয়নে বিএনপির ১০ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন। বাকি ১০ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী হলেও তাদের মধ্যেও একাধিক আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী রয়েছেন।
জাঙ্গালিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী তিনজন। তারা হলেন, সাবেক চেয়ারম্যান মো. আবদুছ ছাত্তার, একেএম ফজলুল হক বাচ্চু ও বুলবুল আহ্‌মেদ। এগারসিন্দুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের একমাত্র বিদ্রোহী প্রার্থী মো. আসাদুজ্জামান। বুরুদিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী দু’জন। তারা হলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান মোহাম্মদ নাজমুল হুদা রুবেল ও সাবেক চেয়ারম্যান মো. মোস্তফা কামাল আকন্দ। পাটুয়াভাঙ্গা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের একমাত্র বিদ্রোহী প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান মো. জালাল উদ্দিন বাচ্চু (আনারস), নারান্দী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের একমাত্র বিদ্রোহী প্রার্থী মো. মুছলেহ উদ্দিন। হোসেন্দী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী দু’জন। তারা হলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান মো. মজিবুর রহমান আকন্দ ও মোহাম্মদ নাজমুল কবির। চণ্ডিপাশা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী দু’জন। তারা হলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান মো. শামছু উদ্দিন ও মো. বোরহান আহমদ আপন। সুখিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের একমাত্র বিদ্রোহী প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান আজিজুল হক তোতা। একমাত্র চরফরাদী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীমুক্ত হলেও এখানে আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক চেয়ারম্যান মো. সোহরাব উদ্দিন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। বিএনপির স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন, জাঙ্গালিয়া ইউনিয়নে শাহীন আলম জনী ও ফরহাদ আহমেদ আপন, চরফরাদী ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান মো. কামাল উদ্দীন ও মো. রফিকুল ইসলাম মানিক, এগারসিন্দুর ইউনিয়নে সাবেক চেয়ারম্যান মো. বজলুল করিম বাবুল, বুরুদিয়া ইউনিয়নে মো. আসাদুজজামান, পাটুয়াভাঙ্গা ইউনিয়নে আসাদুজ্জামান আসাদ ও মো. আ. মান্নান মনাক, নারান্দী ইউনিয়নে মো. এনামুল হক সাজু এবং হোসেন্দী ইউনিয়নে সাবেক চেয়ারম্যান মো. মানসুরুল হক বাবুল।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর