× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২৬ মে ২০২২, বৃহস্পতিবার , ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৪ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

ঢাকায় পৌঁছে গেইলের হুংকার

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার
২৪ জানুয়ারি ২০২২, সোমবার

সুখে মোড়ানো ক্রিস গেইলের বিপিএল অধ্যায়। একের পর এক নান্দনিক পারফরম্যান্সে কেড়ে নেন বাংলাদেশের ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টটির আলো। অষ্টম আসরে ফরচুন বরিশালের হয়ে মাঠ মাতাতে গতকাল ঢাকায় পৌঁছেন ইউনিভার্স বস। আর ভক্ত-সমর্থকদের দারুণ কিছু পারফরম্যান্স উপহার দেয়ার আশ্বাস দেন ক্যারিবীয় তারকা। এবার বিপিএলের প্লেয়ার্স ড্রাফটের আগেই গেইলকে দলে ভিড়িয়েছে বরিশাল। ব্যক্তিগত কারণে টুর্নামেন্ট শুরুর আগে বাংলাদেশে আসা হয়নি তার। খেলতে পারেননি বিপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচ। গতকাল সকাল ১১টায় ঢাকায় পা রাখেন তিনি।
বিপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে হারিয়ে দুর্দান্ত শুরু করেছে ফরচুন বরিশাল। দ্বিতীয় ম্যাচে আগামীকাল তাদের প্রতিপক্ষ মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকা। এই ম্যাচের আগেই গেইলের ২৪ ঘণ্টার কোয়ারেন্টিন শেষ হবে। কোভিড নেগেটিভ হওয়া সাপেক্ষে এই ম্যাচ দিয়েই মাঠে নামতে দেখা যেতে পারে তাকে। এক ভিডিও বার্তায় গেইল বলেন, ‘হ্যালো ফরচুন বরিশাল, আমি ক্রিস গেইল, ইউনিভার্স বস। আমাকে দলে নেয়ার জন্য ধন্যবাদ। সবার সঙ্গে দেখা করার জন্য আমি মুখিয়ে আছি। দারুণ কিছু করার অপেক্ষা করছি। প্রথম জয়ের জন্য অভিনন্দন, পরের ম্যাচের জন্য শুভ কামনা। আমি যখন দলে যোগ দেব, ইউনিভার্স বস তার কাজ শুরু করে দেবে। উষ্ণ আতিথেয়তার জন্য ধন্যবাদ।’ বিপিএলের প্রথম আসরে বরিশালের হয়েই খেলেছিলেন গেইল। সেবার ফ্র্যাঞ্চাইজিটির নাম ছিল বরিশাল বার্নার্স। সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে উদ্বোধনী ম্যাচে আলো ছড়ানোর পর আরো একটি ম্যাচে শতরানের দেখা পান গেইল। ৫টি ম্যাচ খেলেছিলেন তিনি প্রথম আসরে।বিপিএলের দ্বিতীয় আসরে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের হয়ে মাত্র একটি ম্যাচ খেলেন গেইল। সেই ম্যাচে সেঞ্চুরি হাঁকান তিনি। পরে ২০১৫ আসরে ৪টি ম্যাচ খেলেন বরিশাল বুলসের হয়ে, ২০১৬ সালে চিটাগং ভাইকিংসের হয়ে ৫টি। ২০১৭ ও ২০১৯ আসরে খেলেন রংপুর রাইডার্সে। ২০১৭ সালের ফাইনালে ১৪৬ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন গেইল। যেটি বিপিএলের সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংস।
৬৯ বলের ইনিংসে সেদিন ১৮টি ছক্কা মেরেছিলেন তিনি। টি-টোয়েন্টিতে ব্যক্তিগত ইনিংসে সবচেয়ে বেশি ছক্কার বিশ্বরেকর্ড সেটি। সবশেষ ২০২০ সালে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের হয়ে গেইল খেলেন ৪ ম্যাচ।
সব মিলিয়ে বিপিএলে ৪২ ইনিংস খেলে ৪১.১৬ গড়ে তার রান ১ হাজার ৪৮২। স্ট্রাইক রেট ১৫৬.৫৯, টুর্নামেন্টে হাজার রান করা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে তার স্ট্রাইক রেটই সেরা। সর্বোচ্চ ৫ সেঞ্চুরির মালিকও তিনি।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর