× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২২ মে ২০২২, রবিবার , ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২০ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

খুলনাঞ্চলে ভোজ্য তেল ও চালের বাজার অস্থির

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা থেকে
২৫ জানুয়ারি ২০২২, মঙ্গলবার

চলছে ভরা শীত মৌসুম। এরপরও কমছে না সবজির দাম। ভোজ্য তেল ও চালের বাজার অস্থির। চালের দাম কেজি প্রতি বেড়েছে অন্তত দুই টাকা। তিন মাস ধরে ভোজ্য সয়াবিনের বাজার ঊর্ধ্বমুখী। দাম স্বাভাবিক অবস্থায় নেমে না আসায় বিপাকে নিম্ন ও মধ্য আয়ের মানুষ।  
নগরীর বিভিন্ন খুচরা বাজারে বোতলজাত ভোজ্য সয়াবিন পুষ্টি ও বসুসন্ধরা (৫ লিটার) ৭৩০ টাকা, ফ্রেশ (৫ লিটার) ৭৩০ থেকে ৭৩৫ টাকা, তীর, রূপচাঁদা ৭৩০ থেকে ৭৩৫ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে। এছাড়া ভোজ্য সয়াবিন (লুজ) লিটার প্রতি বিক্রি হয়েছে ১৩০ থেকে ১৩৫ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে।
 
নগরীর বিভিন্ন খুচরা বাজারে চাল প্রতিকেজি ২৮ বালাম ৫২ থেকে ৫৪ টাকা, মিনিকেট মানভেদে ৬০ থেকে ৬২ টাকা, বাসমতি ৬৫ থেকে ৬৬ টাকা ও স্বর্ণা মোটা ৪২ থেকে ৪৩ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে।
অথচ তিন মাস আগে ২৮ বালাম ৫০ থেকে ৫২ টাকা, মিনিকেট মানভেদে ৫৮ থেকে ৬০ টাকা, বাসমতি ৬০ থেকে ৬২ টাকা ও স্বর্ণা মোটা ৪০ থেকে ৪২ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে।
এদিকে খুচরা বাজারে মানভেদে প্রতিকেজি কাঁচামরিচ ৪০ টাকা, বেগুন ৫০ টাকা, আলু ১৫ থেকে ১৬ টাকা, দেশি পিয়াজ (দেশি) ৩৫ টাকা, পেঁপে ৩০ থেকে ৩৫ টাকা, শীতকালীন শিম ৬০ টাকা, গাজর ৩৫ থেকে ৪০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে। সপ্তাহখানেক ধরে এমন অবস্থা বিরাজ করছে।   
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর