× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ১৮ মে ২০২২, বুধবার , ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৬ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

দুর্নীতির বিরুদ্ধে অ্যাকশনের ঘোষণা সিটি করপোরেশনের

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, রংপুর থেকে
২৫ জানুয়ারি ২০২২, মঙ্গলবার

ব্যক্তিস্বার্থ হাসিল করতে নগরবাসীকে জিম্মি করে রংপুর সিটি বাজার ব্যবসায়ী সমিতির হরতাল পালনকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। বিক্ষুব্ধ সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ সিটি বাজার ব্যবসায়ী সমিতিকে অনিয়মের স্বর্গরাজ্য উল্লেখ করে কতিপয় ব্যবসায়ীর দুর্নীতির বিরুদ্ধে অবিলম্বে অ্যাকশনের ঘোষণা দিয়েছেন করপোরেশন কর্তৃপক্ষ। গতকাল দুপুরে সিটি করপোরেশন মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে পরিষদের পক্ষ থেকে মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা অভিযোগ করে বলেন, সিটি করপোরেশনের বকেয়া লাখ লাখ টাকা ভাড়া পরিশোধ না করে ব্যবসায়ী সমিতির নামে সভাপতি অবৈধভাবে অনেক দোকানসহ সম্পাদক ও অন্যান্যরা ফায়দা নিচ্ছে। সিটি করপোরেশন আদায়ের চাপ দিতেই তারা অবৈধভাবে হরতালের আহ্বান করে পরিস্থিতি ঘোলাটের চেষ্টা করছে। সিটি মেয়র বলেন, রংপুর নগরীর প্রাণকেন্দ্রে ৪ একর ১৬ শতক জমির ওপর রংপুর সিটি বাজার অবস্থিত। এ বাজারে ১ হাজার ১১২টি দোকান রয়েছে। এ বাজারের উন্নয়ন সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন, পাকা সড়ক তৈরী, বাজার নিরাপত্তায় গেট-গণশৌচাগার নির্মাণসহ নানা উন্নয়ণমূলক কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করা হয়েছে। সরকারী নিয়ম অনুযায়ী সিটি বাজার থেকে প্রাপ্ত আয় থেকে শতকরা ৪৫ ভাগ টাকা বাজারের উন্নয়ন খরচ করা কথা।
কিন্তু বর্তমান সিটি পরিষদ বাজারের উন্নয়নে শতকরা ১১০ ভাগ টাকা খরচ করেছে। এরপরেও সিটি বাজারের কোন উন্নয়ন হয়নি অভিযোগ এনে বাজার ব্যবসায়ী কমিটি ৫ দফা দাবি জানিয়ে গত ১৯শে জানুয়ারি সকাল-সন্ধ্যা ধর্মঘট পালন করেছে। যা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও সিটি পরিষদকে নগরবাসীর কাছে হেয়-প্রতিপন্ন করা হয়েছে। অথচ সিটি বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দরা ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে বাজারের সড়ক দখলের সুযোগ করে দিয়েছে। নেতৃবৃন্দরা তাদের দোকানের ভাড়া পরিশোধ করছে না। অবৈধভাবে দোকান নির্র্মাণ করে আর্থিক সুবিধা গ্রহণ করছে। এসবের বিরুদ্ধে সিটি কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বললে তারা সিটি করপোরেশনের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছে। এছাড়া আগামী নির্বাচনে আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের একটি অংশ এটি আমি মনে করছি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন মিঞা, প্যানেল মেয়র মাহমুদার রহমান টিটুসহ কাউন্সিলররা।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর