× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ১৬ মে ২০২২, সোমবার , ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৪ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

আলাপন /নোংরা রাজনীতির শিকার হয়েছিলাম -পল্লব

বিনোদন

মুজাহিদ সামিউল্লাহ
২৮ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার

নব্বই দশকের মডেল আইকন পল্লব চক্রবর্তী। মৌ, তানিয়া, সুইটিদের সঙ্গে জুটি বেঁধে বিলবোর্ডে কিংবা টিভিসিতেই তার উপস্থিতি সীমাবদ্ধ ছিল না। সেই সময় ঢাকায় র‌্যাম্প মডেলিংয়ে তার উজ্জ্বল উপস্থিতি ছিল উল্লেখ করার মতো। এই মডেল শতাধিক টেলিভিশন নাটকেও অভিনয় করেছেন সফলতার সঙ্গে। এরপর দীর্ঘ সময় পল্লব শোবিজে কাজই করেননি তেমন। কেমন আছেন তিনি? উত্তরে তিনি বলেন, ভালোই আছি। সুস্থ আছি। দীর্ঘদিন আপনি শোবিজে নেই।
কেনো? পল্লব বলেন, গত দশ বছর পারিবারিক নানান ঝামেলায় ছিলাম। এরমধ্যে বাবা আর ভাইকে হারিয়েছি। সব মিলিয়ে টেনশনের মধ্যদিয়ে সময় গেছে।

এত উজ্জ্বল ছিল আপনার শোবিজ ক্যারিয়ার। ভাবতে কেমন লাগে? এ মডেল বলেন, শিল্পীরা কখনও অতীত হয় না। তারা কাজের মধ্যে সব সময় বর্তমানে বিরাজ করে। শোবিজের একজন জনপ্রিয় নৃত্যশিল্পীর সঙ্গে আপনার প্রেম সেই সময় আলোচিত ছিল। অনেকেই বলেন, আপনার ক্যারিয়ারের সেরা সময়ে প্রেমকে প্রাধান্য দিয়ে কাজের প্রতি অনেকটা অমনোযোগী ছিলেন! হাসতে হাসতে পল্লব বলেন, প্রেম তো স্বর্গীয়। প্রেমে ব্যর্থতাও কখনো কখনো মানুষকে নতুন করে বাঁচতে শেখায়। সত্যি বলতে সেই সময় আমি তার প্রেমে বুঁদ হয়ে ছিলাম।

তার প্রধান কারণ ছিল আমার প্রেমে কোনো ঘাঁটতি ছিল না।একটু ভিন্ন প্রসঙ্গে আসি। আপনার প্রথম শোবিজে সম্পৃক্ততা কীভাবে আর কখন? পল্লব বলেন, ১৯৯১ সালে প্রথম ‘টাওয়ার ফ্যাশন’ শোতে পারফরম করি। একই বছর বিখ্যাত অভিনেতা-নির্মাতা আফজাল ভাইয়ের হাত ধরেই টিভি বিজ্ঞাপনে আমার অভিষেক হয়। বাংলাদেশের প্রথম প্যাকেজ নাটক ‘প্রাচীর পেরিয়ে’তে অভিষেক হয় অভিনেতা হিসেবে। প্রয়াত হুমায়ূন ফরিদীর মতো অভিনেতার সঙ্গে পর্দা শেয়ার করেছি। অনেক নাটকে আমি অভিনয় করেছি। সেই সময় মনে হয় আমিই একমাত্র অভিনেতা যার একটি সিনেমা মুক্তির আগে ২০টির মত সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলাম।

অবশ্য চুক্তি হওয়া অনেক সিনেমাই শুটিং ফ্লোর পর্যন্ত গড়ায়নি (হাসি)। তিনি আরও বলেন, আমি হৈ চৈ পছন্দ করি, তাই বলে যে কাজের সময় করি তা নয়। আমার এই সরলতাকে নিয়ে মিডিয়ায় গুজব ছড়ানো হয়েছিল আমি নাকি কাজে মনযোগী না। সেই সময় নোংরা রাজনীতির শিকার হয়েছিলাম। ধীরে ধীরে আমাকে নাটক থেকে বাদ দেয়া হয়েছিল। আমার অনেক প্রিয় নাট্যকার-পরিচালক তাদের কাজ থেকে আমাকে বাদ দিয়েছিলেন। তাদের আচরণ আমাকে ব্যথিত করেছিল। শোবিজে ফেরার পরিকল্পনা আছে? এ তারকা বলেন, অবশ্যই। আবার পুরোদমে নাটক, সিনেমায় ব্যস্ত হতে চাই। তার জন্য নাট্যকার, নির্মাতা ও সাংবাদিক ভাইবোনদের সহযোগিতা কাম্য।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর