× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ১৮ মে ২০২২, বুধবার , ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৬ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

সিরাজগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে নিহত ১

বাংলারজমিন

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার

সিরাজগঞ্জের পৌর এলাকার মিরপুর মহল্লায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের আঘাতে মুলকাত আলী (৫৫) নামে একজন নিহত হয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এই ঘটনা ঘটে। স্থানীয় কাউন্সিলর মো. আরজু জানায়, পৌর এলাকার মিরপুর মহল্লার ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন সংলগ্ন একটি জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে মুলকাত আলী ও আকরাম খানের মধ্যে মামলা চলছে। মামলা আদালতে বিচারাধীন থাকা অবস্থায়ই জমিটি কেনার জন্য আকরাম খানের সঙ্গে বায়না করেছে সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সহ-সভাপতি এবং সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর কাদের শেখ। বায়নার পর থেকেই বিবদমান জমিটি আকরাম খানের পক্ষে দখল নিতে তার বাহিনী নিয়ে কয়েক দফা সেখানে হামলা চালিয়েছে বলে জানি। নিহত মুলকাত আলীর বড় ছেলে জাকারিয়া ইসলাম কাওছার বলেন, গত ‘বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিএনপি নেতা আব্দুল কাদের শেখ, তার দুই ছেলে সবুজ ও সোহাগ, আকরাম খানের মেয়ের জামাই আব্দুস সামাদ এবং তাদের বাহিনী জমি দখল নিতে গেলে আমার বাবা মুলকাত আলী বাধা দেয়। একপর্যায়ে তারা আমার ও বাবার ওপর হামলা চালায়। তারা বাবার ঘাড়ে লাঠি দিয়ে আঘাত করলে তিনি সেখানেই লুটিয়ে পড়েন।
তখন তাকে প্রথমে সিরাজগঞ্জের একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখান থেকে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।’ তিনি আরও বলেন, বিএনপি নেতা আব্দুল কাদের শেখের উপস্থিতিতেই এই ঘটনা ঘটেছে। তারা হত্যাকারীদের শাস্তি দাবি করেছেন। মরদেহ সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। গতকাল ময়নাতদন্ত শেষে ডাক্তাররা আমার বাবার মৃতদেহ বুঝিয়ে দেবে। সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম জানান, দীর্ঘদিন ধরে মিরপুর মহল্লার এই জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এর জের ধরেই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে অভিযোগ ভিকটিমের পরিবারের। এই ঘটনায় নিহতের বড় ছেলে জাকারিয়া ইসলাম কাওছার বাদী হয়ে গতকাল সকালে একটি মামলা দায়ের করেছে। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা নেয়া হবে।
উল্লেখ্য, গত ২৪শে জানুয়ারি ভোরে কাদের শেখের বাহিনী মুলকাত আলীর বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। পরে ৯৯৯-এ ফোন দিলে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ওই ঘটনায় ২৬শে জানুয়ারি মুলকাত আলীর ছেলে জাকারিয়া ছয়জনের বিরুদ্ধে সিরাজগঞ্জ সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। কিন্তু তারপরও পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি বলে অভিযোগ রয়েছে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর