× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ১৮ মে ২০২২, বুধবার , ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৬ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

কালীগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে শ্রমিকের মৃত্যু

বাংলারজমিন

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি
২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌরবাসীর বসতবাড়ির ওপরে ৩৩ হাজার ভোল্টেজ বিদ্যুতের তার টানানো আছে অনেক আগে থেকেই। এই তারের নিচেই চাপালী, নদীপাড়া, আড়পাড়া গ্রামের অনেক মানুষের বসবাস। এর আগেও এই তারে স্পৃটে অনেকেই অকালে প্রাণ হারিয়েছেন। আবার অকালে প্রাণ হারালো এক যুবক। হৃদয়বিদারক ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ শহরের আড়পাড়া (নদীপাড়া) এলাকায়।
গতকাল দুপুরে বাড়ির দোতলার ছাদে রংয়ের কাজ করছিলেন শ্রমিক নইম (২৫) ও তুষার (২২)। ওই ছাদেরই উপরে প্রায় ছুঁই ছুঁই অবস্থায় ছিল ৩৩ হাজার ভোল্টেজ বিদ্যুৎ সরবরাহ লাইন। অসাবধানতাবশত কাজ করা অবস্থায় হঠাৎ ওই বিদ্যুতের তারের ভোল্টেজ টেনে নেয় দু’জনকে। এ সময় তাদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে বাঁশের খুঁটি দিয়ে তাদেরকে উদ্ধার করে।
ততক্ষণে ঘটনাস্থলেই নইম নিহত ও অপরজন আহত হন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস টিম দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে তাদেরকে উদ্ধার করে কালীগঞ্জ হাসপাতালে পাঠায়। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে। কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক সুমাইয়া আফরিন জানান, নইমকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছিল। আর আহত তুষারের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে যশোর সদর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। নিহত নইম উপজেলার কাদিরকোল গ্রামের নজরুল ইসলামের পুত্র। আহত তুষারের বাড়িও একই গ্রামে। পেশায় তারা দু’জনেই রংমিস্ত্রি শ্রমিক বলে জানা গেছে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর