× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২২ মে ২০২২, রবিবার , ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২০ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

মৃত্যুর গুজব উড়িয়ে...

দেশ বিদেশ

মালয়েশিয়া প্রতিনিধি
২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার

মৃত্যুর গুজব উড়িয়ে দিয়ে আধুনিক মালয়েশিয়ার রূপকার ডা. মাহাথির মোহাম্মদ সুস্থ হয়ে স্বাভাবিকভাবে হাঁটাচলা ও খাওয়া-দাওয়া করছেন। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, মাহাথির এখন আগের চেয়ে অনেকটাই সুস্থ এবং আশঙ্কামুক্ত। গতকালই তাকে করোনারি কেয়ার ইউনিট থেকে সাধারণ ওয়ার্ডে স্থানান্তর করা হয়েছে। নিয়মিত খাবার ও স্বাভাবিকভাবেই হাঁটছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মাহাথিরের বড় মেয়ে দাতিন পাদুকা মেরিনা মাহাথির।
মাহাথির মালয়েশিয়ার সাবেক সরকার প্রধান হলেও দক্ষিণ এশিয়া ও বাংলাদেশে ব্যাপক জনপ্রিয়। বিশেষ করে রোহিঙ্গা ও ফিলিস্তিনের জেনোসাইডের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার জন্যে।
এদিকে গতকাল ও এর আগেরদিন বাংলাদেশের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে  একটি গুজব ভাইরাল হয়েছে যে মাহাথির মোহাম্মদ মারা গেছেন।
পরে কোনো সংবাদ মাধ্যমে মাহাথিরের মুত্যুর খবর প্রকাশিত না হওয়ায় সবার টনক নড়ে। অনেকেই মালয়েশিয়ায় থাকা স্বজনদের কাছে ফোন করে জানতে চেয়েছেন মাহাথির জীবিত না মৃত। অবশেষে সবাইকে তাক লাগিয়ে হসপিটালে হাঁটছেন তিনি।
মাহাথির কন্যা জানিয়েছেন, তার পিতা আগের থেকে অনেকটাই নিরাপদ ও আশঙ্কামুক্ত এবং বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা জানিয়েছেন মাহাথির চিকিৎসক ও নার্সদের সঙ্গে হাসি ঠাট্টায় মেতেছেন।  তিনি আরও বলেন, মাহাথির এখন বেশি বেশি খাবার খাচ্ছেন রিকভারির জন্য। এতে চিকিৎসক ও পরিবার মহা খুশি। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের আন্তরিক প্রচেষ্টায় দ্রুত সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরছেন,  চিকিৎসকসহ যারা তার পিতার জন্য দোয়া করেছেন তিনি দেশে বিদেশে সকল শুভাকাঙ্ক্ষীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। দক্ষিণ এশিয়ার শক্তিশালী রাজনীতিক ৯৬ বছর বয়সী মাহাথির মোহাম্মদ গত ৭ই জানুয়ারি বুকের সমস্যা নিয়ে দেশটির ন্যাশনাল হার্ট ইনস্টিটিউট-এ  ভর্তি হয়ে সিসিউতে নিবিড় পরিচর্যায় ছিলেন। প্রথমদিকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তার অবস্থা স্থিতিশীল। তখন স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা হাসপাতালের সামনে ভিড় জমিয়েছিলেন।
 তখন মাহাথির কন্যা মেরিনা সবার উদ্দেশ্যে বলেন,  আমার পিতার জন্য সবাই দোয়া করেন আর এমন কোন খবর প্রচার করবেন না যে আমরা উদ্বিগ্ন হই।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Kazi
২৮ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার, ৯:০১

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গুজব ছড়ানোর কি কোন শাস্তি নাই ? থাকলে গুজব রটনা কারিদের বিরুদ্ধে প্রশাসন ব্যবস্থা নিবে আশা করি ।

অন্যান্য খবর