× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ১৮ মে ২০২২, বুধবার , ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৬ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

নিহত ৭ জনের লাশ ফেরাতে সক্রিয় দূতাবাস /ইতালিতে অভিবাসন প্রত্যাশী ২৮৭ জনের ২৭৩ জনই বাংলাদেশি!

অনলাইন

কূটনৈতিক রিপোর্টার
(৩ মাস আগে) জানুয়ারি ২৯, ২০২২, শনিবার, ৯:৫৮ পূর্বাহ্ন

রোমের বাংলাদেশ দূতাবাস জানিয়েছে, ইতালিতে অভিবাসনের আশায় ভূমধ্যসাগর পাড়ি দেয়ার পথে ধরা পড়া ২৮৭ জনের মধ্যে ২৭৩ জনই বাংলাদেশি। এর মধ্যে ৭ বাংলাদেশি ঠাণ্ডাজনিত রোগে নৌকাতেই মারা গেছেন। অসাধু মানবপাচারকারী চক্র তাদের ওই বিপদসংকুল পথে নিয়ে গেছে বলে জানিয়েছে মিশন। ওই দুষ্ট চক্র থেকে সাবধান থাকতে দেশের তরুণদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রোমে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শামীম আহসান। দূতাবাসের জারি করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ২৫ শে জানুয়ারি সংঘটিত দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করা হয়।

এ বিষয়ে পরবর্তী প্রয়ােজনীয় কার্যক্রম গ্রহণের জন্য দূতাবাস ইতালির সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে যােগাযােগ রক্ষা করে চলছে বলেও জানানো হয়। সাত বাংলাদেশীর মর্মান্তিক মৃত্যু পরবর্তী কার্যক্রমে ইতালিস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের সক্রিয় রয়েছে জানিয়ে প্রচারিত বিজ্ঞপ্তি জানানো হয়, গত ২৫ জানুয়ারি সংঘটিত মর্মান্তিক ঘটনায় দীর্ঘক্ষণ তীব্র ঠাণ্ডায় থাকার ফলে হাইপােথার্মিয়া জনিত কারণে সাত বাংলাদেশী নাগরিকের নিহত হওয়ার বিষয়ে অবহিত হওয়ার পর থেকেই ইতালিস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে নিবিড় যােগাযােগ রক্ষা করে চলছে। ইতালির কাতানিয়া ও পালেরমােতে নিযুক্ত বাংলাদেশের অনারারী কনসালগণের মাধ্যমেও বাংলাদেশ দূতাবাস প্রকৃত তথ্য অনুসন্ধান এবং যথােপযুক্ত করণীয় নির্ধারণের মাধ্যমে সক্রিয়ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।


দূতাবাসের কাউন্সেলর (শ্রম কল্যাণ) মােঃ এরফানুল হকের নেতৃত্বে ও দূতাবাসের একজন ইতালী-ভাষী কর্মচারীসহ দুই সদস্য বিশিষ্ট একটি দল দুর্ঘটনার পরদিনই (২৬ জানুয়ারি ২০২২) লাম্পেডুসা দ্বীপে পৌঁছায়। এই মর্মান্তিক ঘটনায় দীর্ঘক্ষণ তীব্র ঠাণ্ডায় থাকার কারণে হাইপােথার্মিয়ায় আক্রান্ত হয়ে সাত অভিবাসন প্রত্যাশীর মৃত্যু হয় যারা বাংলাদেশের নাগরিক বলে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানায়। কাউন্সেলর হক ২৭ জানুয়ারি ২০২২ তারিখে লাম্পেডুসার ডেপুটি মেয়র প্রেস্টিপিনাে সালভাতােরে এর সাথে সাক্ষাত করেন (মেয়র শহরের বাইরে থাকায় তাঁর সাথে সাক্ষাত করা সম্ভব হয়নি)। সাক্ষাতকালে তারা দুর্ঘটনার বিষয়ে ও ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা প্রতিকারে প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ/ করণীয় কৌশল নির্ধারণের বিষয়ে বিস্তারিত আলাপ করেন এবং ইতালীয় কর্তৃপক্ষের সাথে দূতাবাসের নিবিড় সমন্বয়ের বিষয়ে মতবিনিময় করেন।

২৮ জানুয়ারি ২০২২ সকাল ১১টায় কোস্টগার্ডের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের সাথে দূতাবাসের প্রতিনিধিদল সাক্ষাত করে। সিসিলি প্রদেশের এগ্রিজেন্তো এলাকায় অবস্থিত মর্গে সাতটি লাশ ফেরত পাঠানাে/ দাফন সম্পাদনের পূর্ব পর্যন্ত রাখা হবে বলে জানা গেছে। মরদেহ বাংলাদেশে ফেরত পাঠানাের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট প্রক্রিয়াগত বিষয়গুলাে নিয়ে আলােচনা চলমান রয়েছে। লাশ পরিদর্শনের জন্য আদালতের অনুমতির বাধ্যবাধকতা থাকায় এখনাে সরেজমিনে লাশগুলাে দেখা সম্ভব হয়নি, তবে প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। দুর্ঘটনাস্থল থেকে জীবিত উদ্ধারকৃতদের বিভিন্ন স্থানে স্থানান্তর করা হয়েছে এবং দূতাবাস প্রতিনিধিদল তাদের সাথে কথা বলেছে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
rifat siddique
৩০ জানুয়ারি ২০২২, রবিবার, ১:১৭

প্রতিদিন ইতালিতে যত নৌকা নোঙর ফেলে তার বেশীরভাগ যাত্রী মানে ৯০ ভাগ বাংলাদেশী কারো বিশ্বাস নাহলে ''Bangladeshi Refuge in Italy'' লিখে গুগলে সার্চ করে দেখতে পারেন। দালালরা এই যাত্রাকে ইতালি গেইম বলে থাকেন।

আমিত অবাক
২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার, ৪:৩৭

সিংগাপুরের মত উন্নত দেশ ছেড়ে সবাই নৌকা দিয়ে ইতালী কেন যেতে চায়?

অন্যান্য খবর