× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৭ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার , ১৩ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

ময়লার ভাগাড় অপসারণের দাবিতে উত্তাল শ্রীমঙ্গল

বাংলারজমিন

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি
১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শুক্রবার

শ্রীমঙ্গলে দুর্বিষহ ময়লার ভাগাড় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসমূহের সম্মুখ থেকে সরানোর দাবিতে কয়েক হাজার মানুষের অংশগ্রহণে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। মানববন্ধন থেকে পৌরবাসী আগামী ১লা অক্টোবর থেকে পৌরসভার এই ভাগাড়ে ময়লা ফেলা বন্ধ করে দেয়ার আলটিমেটাম দিয়ে আগামী ২৩শে সেপ্টেম্বর পৌরসভা চত্ব্বরে অবস্থান  কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। এই কর্মসূচি ঘিরে সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সেখানে উত্তাল পরিস্থিতি বিরাজ করে।

 শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের সম্মুখ হতে ময়লার ডিপো অপসারণ কমিটির ব্যানারে বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টা থেকে ৩ ঘণ্টাব্যাপী ছাত্র অভিভাবক, শহরের স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রী, রাজনৈতিক, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার কয়েক হাজার বিক্ষুদ্ধ মানুষ মানববন্ধন কর্মসূচিতে যোগ দেন।

এ সময় স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা ‘শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ময়লার স্তূপ-কর্তৃপক্ষ কেন নিশ্চুপ’, ‘প্রকট দুর্গন্ধ থেকে মুক্তি চাই’ আমরা আপনাদের সন্তান-আমাদের বাঁচান’ বিভিন্ন স্লোগান সম্বলিত লেখা প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে মানববন্ধনে অংশ নেয়।
এনজিও এমসিডার নির্বাহী প্রধান তহিরুল ইসলাম মিলনের সঞ্চলানায় এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহের সম্মুখ হতে ময়লার ডিপো অপসারণ কমিটির আহ্বায়ক নুরুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ‘বাঁচাও পরিবেশ বাঁচাও প্রাণ’- স্ল্লোগানে মানবন্ধন কর্মসূচি চলাকালে শ্রীমঙ্গল প্রেস ক্লাব, সাইক্লিস্ট অব  শ্রীমঙ্গল, শ্রীমঙ্গল নাট্যমঞ্চ, শ্রীমঙ্গল সরকারি কলেজ, দি বাডস রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুল এন্ড কলেজ, দ্বারিকাপাল মহিলা কলেজ, এনজিও এমসিডা, গাউসিয়া সুন্নিয়া শফিকিয়া দাখিল মাদরাসাসহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক ও মানবাধিকার সংগঠনসমূহ সংহতি প্রকাশ করেন। এ সময়  সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ, সহকারী অধ্যাপক সুদর্শন শীল, বাডস কলেজের অধ্যক্ষ জাফর আহমেদ, দ্বারিকাপাল মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ সৈয়দ মনসুরুল হক, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান এমএ রহিম, শ্রীমঙ্গল প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এম. ইদ্রিস আলী, সাবেক চেয়ারম্যান পরাগ বাড়ই, আফজাল হক, শিল্পপতি সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী, গাউসিয়া সুন্নিয়া শফিকিয়া মাদরাসার সুপারিনটিনডেন্ট সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, সাংবাদিক কলামিস্ট সৈয়দ আমিরুজ্জামান, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি বেলায়েত হোসেন, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মঞ্জুর হোসেন চৌধুরী, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি সাইদুর রহমান সুজাত, সাংবাদিক সৈয়দ সালাউদ্দিন, সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ইমতিয়াজ হোসেন, বাডস স্কুল কলেজের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী সানজিদা চৌধুরী অমিয়া, ৫ম শ্রেণির ছাত্র শেখ তাওসিফ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। এ বিষয়ে শ্রীমঙ্গল পৌরসভার মেয়র মো. মহসিন মিয়া বলেন, ‘ময়লা ফেলার জন্য পৌরসভা থেকে পশ্চিম ভাড়াউড়া  হাওড় এলাকায় যে জায়গা একোয়ার করা হয়েছিল। সরকার উপযুক্ত মনে করেই সেখানে ময়লা ফেলার স্থান নির্ধারণ করে দিয়েছে। কিন্তু এলাকাবাসীর আপত্তি ও উচ্চ আদালতে বার বার রিট করায় ভাগাড়টি চালু করা যাচ্ছে না।
এনিয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও প্রশাসনের অসহযোগিতাও রয়েছে। ফলে কলেজের সামনের ভাগাড়ে ময়লা ফেলা বন্ধ করা যাচ্ছে না।

 আল্টিমেটাম সম্পর্কে মেয়র বলেন, ‘ময়লা ফেলতে আন্দোলনকারীরা বাধা দিলে পৌরসভার গাড়িতেই ময়লা পড়ে থাকবে। তখন সরকারই সিদ্ধান্ত নেবে পৌরসভার ময়লা কোথায় যাবে’।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর