× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২ ডিসেম্বর ২০২০, বুধবার

ছেলের জন্মদিনে অপুর জমকালো আয়োজন

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ১১:৩৩

তিন বছর পূর্ণ করে আজ চতুর্থ বর্ষে পা রাখলো ঢাকাই চলচ্চিত্রের তারকা জুটি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের একমাত্র সন্তান আব্রাম খান জয়। ২০১৬ সালের ২৭ শে সেপ্টেম্বর জন্মগ্রহণ করেন এই তারকা পুত্র। কেউ কেউ  ছোট্ট জয়কে তার বাবার মতো ‘সুপারস্টার’ বলে সম্মোধন করেন। শাকিব-অপুর দাম্পত্য জীবনে বনিবনা না হওয়ায় তাদের মধ্যে ছাড়াছাড়ি হয়ে গেছে। জয় তার মা অপু বিশ্বাসের কাছে থাকে এখন। জয়ের জন্মদিন জমকালোভাবে পালন করার উদ্যোগ নিয়েছেন মা অপু বিশ্বাস। আজ সন্ধ্যায় রাজধানীর গুলশানের একটি কমিউনিটি সেন্টারে জয়কে নিয়ে জন্মদিন পার্টির আয়োজন করেছেন বলে জানান তিনি। সেখানে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন শোবিজের বেশকিছু তারকাদের।
এদিকে শাকিব খান বর্তমানে ‘আগুন’ ছবির শুটিংয়ে কক্সবাজার রয়েছেন। শত ব্যস্ততায় ডুবে থাকলেও বাবা হিসেবে সন্তানের সব দায়িত্ব পালন করছেন শাকিব খান, এমনটাই জানান তিনি। অবসর পেলেই ছেলেকে পরম স্নেহে আগলে রাখেন। তার সঙ্গে খেলায় মেতে ওঠেন। গত বছর আব্রাম খান জয়কে ভর্তি করানো হয় রাজধানীর বারিধারায় আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ঢাকা (এআইএসডি)- তে।


সেখানেও জয়কে ভর্তি করানোর সময় হাজির ছিলেন শাকিব খান, সঙ্গে ছিলেন অপু বিশ্বাস। শাকিব খান জানান, সময় পেলে ছেলেকে নিয়ে ঘুরতে বের হন তিনি। সবসময় জয়ের খোঁজ খবর রাখেন তিনি। তবে এবারের জন্মদিনে ছেলে জয়ের সঙ্গে সরাসরি দেখা হচ্ছে না বাবা শাকিবের। কারণ, ‘আগুন’ ছবির শুটিংয়ে শাকিব খান কক্সবাজার রয়েছেন। উল্লেখ্য, ঢাকাই চলচ্চিত্রে জুটি বেঁধে ৫০টির বেশি সিনেমায় অভিনয় করেন শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস। তারা ২০০৮ সালে গোপনে বিয়ে করেন। ২০১৬ সালের ২৭শে সেপ্টেম্বর কলকাতার একটি হাসপাতালে জয়ের জন্ম হয়। কিন্তু এই সবকিছুই গোপন ছিল। ২০১৭ সালের ১০ই এপ্রিল দুপুরে ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে বেসরকারী এক টিভির লাইভ অনুষ্ঠানে এসে সবকিছু অপু বিশ্বাস প্রকাশ করেন শাকিব খান তার স্বামী, তাদের বিয়ে হয়েছে। আর তাঁদের একমাত্র সন্তান আব্রাম খান জয়। এরপরই শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের মধ্যে সম্পর্কের  অবনতি ঘটে, তাদের মধ্যে দূরত্ব তৈরি হয়। ২০১৭ সালের ২২শে নভেম্বর অপু বিশ্বাসকে আইনজীবীর মাধ্যমে তালাক নোটিশ পাঠান শাকিব খান। ওইদিন থেকে আইন অনুযায়ী তিনমাস অর্থাৎ ৯০ দিন সময় ছিল এই তালাক কার্যকর হতে। চূড়ান্তভাবে ২০১৮ সালে ২২ শে ফেব্রুয়ারি শাকিব-অপুর বিচ্ছেদ কার্যকর হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর