× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২০ জানুয়ারি ২০২১, বুধবার

টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ২

বাংলারজমিন

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি
১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার

টেকনাফে র‌্যাবের হাতে ৮ লাখ ইয়াবা ও ৬টি অস্ত্রসহ আটক দুই ইয়াবা ডন পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে। নিহতরা হলো- হোয়াইক্যং ইউনিয়নের নয়াবাজার এলাকার দিল মোহাম্মদের ছেলে মো. আমিন প্রকাশ নুর হাফেজ (৩২) ও হ্নীলা ইউনিয়নের রঙ্গিখালী এলাকার সাব্বির আহমদের ছেলে মো. সোহেল (২৭)। ঘটনাস্থল থেকে ৬টি আগ্নেয়াস্ত্র ১৮ রাউন্ড কার্তুজ, ১৩টি কার্তুজের খোসা, ৯৫০০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। গতকাল ভোর রাতে হ্নীলা ইউনিয়নের রাঙ্গিখালী গাজিপাড়ার পাশ্চিম পাহাড়ের পাদদেশে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় ওই দুই যুবক মারা যায়। পুলিশের পাঁচ সদস্য আহত হন বলে দাবি করেছে টেকনাফ থানা পুলিশ।টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা প্রদীপ কুমার দাশ জানান, ১৩ই  ডিসেম্বর ভোররাতে র‌্যাব কর্তৃক ৮ লাখ পিস ইয়াবা, ৬টি আগ্নেয়াস্ত্র সহ শীর্ষ মাদক ও ইয়াবা ব্যবসায়ী মো. আমিন প্রকাশ নুর হাফেজ (৩২) মো. সোহেল (২৭) সৈয়দ নুর (২৭) সৈয়দ আলম প্রকাশ কালুদের (৪৫) গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। এই সংক্রান্ত অস্ত্র ও মাদক আইনে মামলা রুজু করা হয়। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মশিউর রহমান ও অফিসার ইনচার্জ ধৃত ইয়াবা ব্যবসায়ীদের ইয়াবার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদে তাদের স্বীকারোক্তি মোতাবেক ইয়াবা উদ্ধার ও অপরাপর সহযোগী ইয়াবা ব্যবসায়ীদের গ্রেপ্তারের জন্য ওই সময়ে পাহাড়ে অভিযান চালায়। ওই সময় সহযোগীরা পুলিশের কাছ  থেকে তাদের ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য এলোপাতাড়ি গুলি ছোড়ে।এতে এসআই কামরুজ্জামান, এএসআই মিশকাত, এএসআই সনজীব দত্ত, কনস্টেবল মহিউদ্দিন ও সেকান্দর গুলিবিদ্ধ হয়।
এরপর পুলিশের জীবন এবং সরকারি সম্পত্তি রক্ষার নিমিত্তে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। উভয় পক্ষের গোলাগুলিতে ধৃত আসামি মো. আমিন প্রকাশ নুর হাফেজ (৩২) এবং মো. সোহেল গুরুতর আহত হয়। আহতদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর