× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৯ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার

রেখার সঙ্গে রিয়ার মিল খুঁজলেন গায়িকা চিন্ময়ী শ্রীপাদ, ৩০ বছর পরে একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি

ভারত

বিশেষ সংবাদদাতা, কলকাতা | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, সোমবার, ১:২৪

ভানুরেখা গণেশন ওরফে বলিউডের লাস্যময়ী অভিনেত্রী রেখার সঙ্গে রিয়া চক্রবর্তীর মিল নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড় করে দিয়েছেন গায়িকা চিন্ময়ী শ্রীপাদ। ৩০ বছর আগে রেখার স্বামী শিল্পপতি মুকেশ আগারওয়াল আত্মঘাতী হন রেখার ওড়না দিয়ে সিলিংফ্যানে জড়িয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে। সেবার উইচহান্টিং করা হয়েছিল রেখাকে নিয়ে। ৩০ বছর পরে সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মঘাতী হওয়ার ঘটনা নিয়ে উইচহান্টিং এর শিকার বলিউড অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী। চিন্ময়ী শ্রীপাদ এর বক্তব্য এই নিয়েই। তিনি রেখার আত্মজীবনী, রেখা দ্য আনটোল্ড স্টোরি থেকে উদ্ধৃতি দিয়ে বলেছেন, মুকেশ আগারওয়াল আত্মঘাতী হওয়ার পর গোটা ভারতে রেখাকে ম্যানইটার নারী বলে তুলে ধরা হয়েছিল। মুকেশের মা বলেছিলেন, রেখা তাঁর ছেলেকে গিলে ফেলেছে। রেখা আসলে মানবী নয়, ডাইনি।
মুকেশের ভাই অনিল গুপ্ত অভিযোগ করেছিলেন, তাঁর দাদা রেখাকে মনপ্রাণ দিয়ে ভালোবেসেছিলেন। রেখা ভালোবেসেছিলো মুকেশের টাকা পয়সা। অনিল গুপ্ত প্রশ্ন তুলেছিলেন, কত টাকা চায় রেখা? ঠিক এখনকার মতো তখনো বলিউড দুভাগে ভাগ হয়ে গিয়েছিলো। পরিচালক সুভাষ ঘাই বলেছিলেন, রেখা সিনেদুনিয়াকে কলংকিত করেছে। কজন এরপর বলিউডের মেয়েদের পুত্রবধু করবে তাতে সন্দেহ আছে। অনুপম খের বলেছিলেন, রেখার মতো মহিলার সঙ্গে মুখোমুখি দেখা হলে আমি নিজেকে সম্বরণ করতে পারবো না। রেখাদের মত মহিলারা সমাজে বসবাসের অযোগ্য। মিডিয়া ট্রায়াল এর সামনেও পড়েন রেখা। বেশ কিছু মিডিয়া তাঁকে উইচ বানিয়ে ছাড়ে।

চিন্ময়ী শ্রীপাদ বলছেন, ৩০ বছর পরেও সেই একই অবস্থার অ্যাকশন রিপ্লে। রিয়াকে ডাইনি সাজানো হচ্ছে। মিডিয়া ট্রায়াল চলছে। চিন্ময়ী শ্রীপাদ এর উপসংহার - রেখা এবং রিয়া দুজনেই ভালোবাসার মাশুল দিয়েছে ও দিচ্ছে। দুজনেই বিত্তশালী পুরুষকে ভালোবেসেছিলেন, দুই পুরুষই মানসিক অস্থিরতার শিকার ছিলেন। রেখা এবং রিয়া দুজনেই অপরাধের কাঠগড়ায় উঠেছেন। এটাই আফসোসের।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর