× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২০ অক্টোবর ২০২০, মঙ্গলবার
হিলি স্থলবন্দরে পিয়াজ আমদানি বন্ধ

১১ ট্রাক পচা পিয়াজ নিয়ে বিপাকে ব্যবসায়ীরা

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর থেকে | ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, সোমবার, ৮:৪৬

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে শনিবার বিকালে ১১ ট্রাক ভারতীয় পিয়াজ প্রবেশের পর আবারো আমদানি বন্ধ রয়েছে। এদিকে ভারত থেকে শনিবার হিলি স্থলবন্দর দিয়ে প্রায় আড়াইশ’ টন যে ১১ ট্রাক পিয়াজ বাংলাদেশে এসেছে তার অধিকাংশই পচা। এ পচা পিয়াজ নিয়ে বিপাকে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা। অতিরিক্ত গরমে পচে যাওয়া এসব পিয়াজ আড়তের সামনে পড়ে আছে। দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে পিয়াজগুলো। এতে শুধু ব্যবসায়ী নয়, পিয়াজের পচা গন্ধে অতিষ্ঠ পথচারী ও এলাকাবাসী। তাই, ব্যবসায়ীরা এসব পিয়াজ প্রতি বস্তা ৫০ থেকে একশ’ টাকা দরে বিক্রি করে দিচ্ছেন। এতে চরম লোকসানের মুখে পড়েছে ব্যবসায়ীরা।
অন্যদিকে ভারতে আটকে থাকা আরো দুইশ’টি পিয়াজ বোঝাই ট্রাক নিয়ে বড় ধরনের ক্ষতির আশংকা বাংলাদেশি আমদানিকারক ও ব্যবসায়ীদের। দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি ও হাকিমপুর উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ বলেছেন, গত ১৩ই সেপ্টেম্বর যেসব পিয়াজ এলসি করা হয়েছিল, সেই এলসি’র প্রায় আড়াইশ’ টন ১১ ট্রাক পিয়াজ রোববার ভারত হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে পাঠিয়েছে। বাকি আরো প্রায় দুইশ’ ট্রাক এখনো ভারতের রাস্তায় আটকা আছে। তিনি জানান, প্রতিবছর চাহিদা থাকায় দেশের বাজার স্বাভাবিক রাখতে ২ লাখ টন পিয়াজ আমদানি করে থাকেন হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকারকরা। চলতি বছরের ৬ই জুন থেকে ১৪ই সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সাড়ে ৩ মাসে পিয়াজ আমদানি হয়েছে ৫৭ হাজার টন। পিয়াজ আমদানি স্বাভাবিক থাকলেও বন্যা ও উৎপাদন সংকট দেখিয়ে হঠাৎ করে পিয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয় ভারত সরকার। বারংবার পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই ভারত সরকারের এমন সিদ্ধান্তে পুঁজি হারাতে বসেছেন হিলির আমদানিকারকরা, ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরাও। এদিকে পচা পিয়াজ রাস্তার পাশে আড়তগুলোর সামনে রাখায় গন্ধ ছড়াচ্ছে। এলাকায় দুর্ভোগে পথচারীরা আবার কেউ প্রতিবস্তা ৫০ থেকে ১শ’ টাকায় কিনে নিয়ে যাচ্ছে এসব পিয়াজ। ভারতের অভ্যন্তরে আটকে থাকা পিয়াজ আমদানিসহ ক্ষতিপূরণের দাবি ব্যবসায়ীদের। অন্যদিকে আমদানির ক্ষেত্রে সব ধরনের সহযোগিতা কামনা করছেন তারা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
মো আলী হায়দার
২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৮:১৪

ভারতের কাছে ক্ষতিপূরন দাবি করা হোক।কেননা নিষেধাজ্ঞার আগে এলসিকৃত পিয়াজ দেশে প্রবেশে বাঁধা দেয়া বেআেইনী।

NARUTTAM KUMAR BISHW
২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার, ৪:০৩

Sad very Sad.

এ কে এম মহীউদ্দীন
২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, সোমবার, ৮:৩৩

পচা পিয়াজ দিয়ে পূজা করুন আর ভারতের জয়গান করুন।

অন্যান্য খবর