× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১ নভেম্বর ২০২০, রবিবার
নিউ ইয়র্ক টাইমসের খবর

মারা গেছেন কিংবদন্তি সম্পাদক স্যার হ্যারল্ড ইভানস

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার, ৫:৩২

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন কিংবদন্তি সাংবাদিক এবং দ্যা সানডে টাইমসের সাবেক সম্পাদক স্যার হ্যারল্ড ইভানস। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরে ৯২ বছর বয়সে তিনি মারা যান। জন্মগতভাবে তিনি বৃটিশ হলেও যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব নিয়ে সেখানেই বাস করছিলেন স্যার হ্যারল্ড ইভানস। ২০০৪ সালে তিনি সাংবাদিকতায় অসামান্য ভূমিকা রাখার কারণে রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের থেকে নাইট উপাধি পান। যদিও এর প্রায় ২০ বছর আগেই তিনি যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব গ্রহণ করেছিলেন।  এ খবর দিয়েছে নিউ ইয়র্ক টাইমস।
দ্য সানডে টাইমসের সম্পাদক হিসেবে ১৯৬৭ সাল থেকে ১৯৮১ সাল পর্যন্ত প্রায় ১৪ বছর কাজ করেন স্যার হ্যারল্ড ইভানস। এরপরে তিনি ছিলেন দ্য টাইমস অব লন্ডনের দায়িত্বে। তিনি পরিচিত ছিলেন অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার একজন দিকপাল হিসেবে।
এছাড়া ফটোগ্রাফির সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন এই কিংবদন্তি। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি বৃটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এডিটর এট লার্জ হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন। তার স্ত্রী সম্পাদক ও লেখিকা টিনা ব্রাউন তার মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করেছেন।
নিউ ইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, ২০০২ সালে বৃটেনের সাংবাদিকরা ভোট দিয়ে হ্যারল্ড ইভানসকে সর্বকালের সেরা বৃটিশ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত করেন। তবে তার সাংবাদিকতার ক্যারিয়ারে তিনি বৃটেনের বাইরের গণমাধ্যমও পরিচালনা করেছেন। দ্য আমেরিকান সেঞ্চুরি ও দে মেইড অ্যামেরিকা তার লেখা জনপ্রিয় দুটি বই। বৃটেনের ম্যানচেস্টারে ১৯২৮ সালে জন্মগ্রহণ করেছিলেন স্যার হ্যারল্ড ইভানস। মাত্র ১৬ বছর বয়স থেকেই সাংবাদিকতার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন এই কিংবদন্তি সাংবাদিক।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর