× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৯ নভেম্বর ২০২১, সোমবার , ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেধে স্ত্রীকে গণধর্ষণ করেছে ছাত্রলীগ কর্মীরা

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে
(১ বছর আগে) সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০, শনিবার, ১:১৯ পূর্বাহ্ন

সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রী নিবাসে স্বামীকে বেধে স্ত্রীকে গণধর্ষণ করেছে ছাত্রলীগ কর্মীরা। পরে পুলিশ গিয়ে গুরুতর অবস্থায় স্ত্রীকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করেছে। এ ঘটনায় সিলেটে তোলপাড় চলছে। মধ্যরাত পর্যন্ত পুলিশ অভিযানে থাকলেও কোনো ছাত্রলীগ কর্মীকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

পুলিশ জানায়- শুক্রবার সন্ধ্যায় এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে বেড়াতে আসেন এক দম্পত্তি। রাত ৯ টার কয়েকজন ছাত্রলীগ কর্মী স্বামীকে মারধোর করে স্ত্রীকে ছিনিয়ে মহিলা ছাত্রী নিবাসে নিয়ে যায়। পরে স্ত্রীর পিছু পিছু স্বামী ছাত্রাবাসে পৌছলে তাকে রশি দিয়ে বেধে ফেলে ছাত্রলীগ কর্মীরা। এক পর্যায়ে স্বামীর সঙ্গে বেড়াতে আসা ওই বধুকে ৫-৬ জন ছাত্রলীগ কর্মী পালাক্রমে ধর্ষন করে।
খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে পৌছলে ছাত্রলীগ কর্মীরা পালিয়ে যায়।

এদিকে- গুরুতর অবস্থায় ওই বধুকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করা হয়। স্ত্রীর সঙ্গে হাসপাতালেও রয়েছেন স্বামী। সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের এডিসি (মিডিয়া) জ্যোর্তিময় সরকার জানিয়েছেন- পুলিশ গিয়ে স্বামী-স্ত্রীকে ছাত্রী নিবাস থেকে উদ্ধার করে। এরপর স্ত্রীকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনার পরপরই পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ধর্ষক ছাত্রলীগ কর্মীদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলে জানান তিনি। কলেজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে- নব নির্মিত ওই ছাত্রী নিবাসটি ফাকা রয়েছে। এ কারণে সেখানে বখাটেরা রাতে আড্ডা দিতো।

এদিকে-ধর্ষক ছাত্রলীগ কর্মীরা টিলাগড়ের রঞ্জিত গ্রæপের সদস্য বলে জানা গেছে। তারা করোনাকালে ফাকা হোস্টেলে আড্ডার পাশাপাশি মাদক সেবন করতো বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। তারা জানান- এ নিয়ে বার বার অভিযোগ জানালেও কলেজ কর্তৃপক্ষ কার্যকর কোনো ব্যবস্থা গ্রহন করেনি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
০১৮৭৫৭১৬৬৭২
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, সোমবার, ৫:৩০

তাদের বিচি দুটো কেটে দেওয়া হক বা গোরা থেকে ঐটা কেটে দেওয়া হক

K b salman
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, শনিবার, ৯:৩৪

তাদের কে ক্রসফায়ারে মারা হউক যারা এই জগন্য কাজ করসে

Shirina
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, শনিবার, ৮:০৩

Ai sob sunte sunte r valo lage na Bangladesh ader jonno drasbin porinito hoyce ader bisar Kno hoy na Ami etai buji na ato jogonni oporar korar porew Ci ci eta amrer Bangladesh ginna kori Ami amr desher manuhs k j dese valo bisar ney sei deser nagorik houar cheye more jawa valo ...ai amder Bangladesh

Aftab Chowdhury
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, শনিবার, ১:৪৫

ধর্ষকদের ক্রস ফায়ার করা হোক । অন্যথায় এর দায় আওয়ামিলীগকেই নিতে হবে।

AshikUllah
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, শনিবার, ১২:১৬

প্রকাশ্যে লিঙ্গ কেটে নেওয়া হোক

Arif Iqbal
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, শনিবার, ১০:২৬

crossfire dewa hok

Ratul Talukder
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার, ৯:২৬

Fasi chai

মিজানুর রহমান
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার, ৮:০৯

কিছুদিন তোলপাড় হবে,আলোচনা কথা-বার্ততা। এরপর সব ঠান্ডা। এইভাবে চলতে থাকলে আমার আপনার মা-বোন নিরাপদ থাকবে তার নিশ্চিতকরন কে করবে!

এ কে এম মহীউদ্দীন
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, শনিবার, ৮:২৮

ভারী মুশকিল। এ নিয়ে এতো হইচই করার কি আছে! তোরা সব জয়ধ্বনি কর। দেশের অনেক 'উন্নয়ন' হয়েছে। আরো হবে বলে আশা করা যায়। কার শক্তি আছে এই উন্নয়ন ঠেকাবার?

মাসুদ
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার, ৭:০৩

কিছুই হবে না, প্রথমে বলা হবে ব্যক্তির অপরাধের দায়ভার সংংগঠন বহন করবে না, পরে তাদের অনুপ্রবেশকারী হিসেবে চিহ্নিত করা হবে। পরের আরেকটি ঘটনায় এই হটনাটা ধামাচাপা পড়ে যাবে- দেখতে দেখতে এসব এখন আমাদের গা সওয়া হয়ে গেছে।

ওমর ফারুক
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার, ৬:৪৭

কলেজ কর্ত্তৃপক্ষ স্বিকার করলো বখাটেরা সেখানে আড্ডা দিত এ জানা স্বত্তেও করেজ কর্ত্তৃপক্ষ কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় এরুপ ঘটনা ঘটে। এর দ্বায় কলেজ কর্ত্তৃপক্ষ এড়াবেন কি করে?

M Anisul Haque
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার, ৬:৪২

কোন অপরাধীর নাম নেই, অথচ সংগঠনের নাম বারবার আসছে, মানে অপরাধী মূখ্য নয়, সংগঠন টার্গেট, এটা উদ্দেশ্য প্রণোদিত হলুদ সাংবাদিকতা ছাড়া আর কি? আসুন নোরাং রাজনীতি ছেড়ে ভিকটিমের পাশে দাড়াই, ধর্ষণের বিরুদ্ধে সোচ্ছার হই!

Mir
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, শনিবার, ৫:৩৬

Why no crossfire to rapist League gang???

Yasin Khan
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার, ৩:২৮

ছাত্রলীগ অপকর্মের আর কিছু বাকী রাখলো না। অবশেষে প্রচ্যের পুষ্পখ্যাত এই সবুজ ক্যাম্পাস ও শাহজালাল রহ. এর পূণ্য ভূমিকে ওরা বিশ্বদরবারে হেয় করলো।

মোঃ মোদাচ্ছিরআলম
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার, ১:৪৫

দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হউক, হউক সে যে কোন গ্রুপ বা দলের।

Shwapohin
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার, ১:৩১

Plz no arrest just crossfire... পুলিশের যে বদনাম হয়েছে তা ঘুচানোর এখনি সময়.....

ঊর্মি
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, শনিবার, ২:২০

ছাত্রদের এহেন নৈতিক অবক্ষয় ও পঁচনশীলতার জন্য দায়ী আসলে কারা?

অন্যান্য খবর