× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১ নভেম্বর ২০২০, রবিবার

প্রতিকূল পরিস্থিতিতে হাজারো বৃটিশ শিক্ষার্থী

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, শনিবার, ৯:৪৪

বৃটেনে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল ও ফ্লাটে লকডাউন হয়ে আছেন কয়েক হাজার শিক্ষার্থী। সেখানে তাদেরকে অবস্থান করতে হচ্ছে নানা প্রতিকূল পরিস্থিতির মধ্যে। তাদের অভিযোগ পর্যাপ্ত সাপোর্ট বা সহযোগিতা করা হচ্ছে না। শুধু ম্যানচেস্টার মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটিতেই সেলফ-আইসোলেশনে রয়েছেন ১৭০০ শিক্ষার্থী। একই রকম কাহিনী ইউনিভার্সিটি অব গ্লাসগো’তে। লন্ডনের অনলাইন মিরর এ খবর দিয়ে বলছে, বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা শুরু হতে যাচ্ছে, এই কথা বলে শিক্ষার্থীদের ক্যাম্পাসে থাকতে উৎসাহিত করা হচ্ছে। এমনটা দাবি করে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা। কয়েক মাসের লকডাউন শেষে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে প্রথম বর্ষের একাডেমিক কার্যক্রম শুরু হওয়ার কথা।
এ সময় শিক্ষার্থীরা নতুন বন্ধু খুঁজে নেন, শুরু করেন নতুন ও স্বাধীন এক জীবন। তারা নিজেদের বাড়ি ছেড়ে দূরে অবস্থান করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ডর্মে বা আবাসিক কোনো ভবনে। কিন্তু দ্বিতীয় দফা করোনা সংক্রমণ তাদের ভাগ্যকে যেন দ্বিতীয়বার নিষ্ঠুরভাবে চেপে ধরেছে। দ্বিতীয় সংক্রমণে বিভিন্ন শহরে দেয়া হয়েছে বিধিনিষেধ। এ সময়ে আবাসিক ভবনে বা ডর্মে সেলফ-আইসোলেশনে থাকা শিক্ষার্থীরা জানালা দিয়ে নানা রকম চিহ্ন সম্বলিত ব্যানার শো করছেন। তাতে লেখা ‘হেল্প’। আবার কোনটিতে লেখা ‘সেন্ড ফুড’। অর্থাৎ তারা সাহায্য চাইছেন অথবা তাদের কাছে খাদ্য পাঠাতে বলা হচ্ছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর