× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১ নভেম্বর ২০২০, রবিবার

বিদায় নিতে হবে বেলারুশের প্রেসিডেন্টকে -ম্যাক্রন

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, রবিবার, ২:৩৮

বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেকজান্দার লুকাশেঙ্কোকে ক্ষমতা থেকে বিদায় নিতে হবে। সরাসরি এমন হুমকি দিয়েছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন। কারণ, সাবেক সোভিয়েত এই প্রজাতন্ত্রের বৈধ প্রেসিডেন্ট হিসেবে লুকাশেঙ্কোকে স্বীকৃতি দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন। এর প্রেক্ষাপটে রোববার ফরাসি একটি সাপ্তাহি লা জার্নাল দু মিনাচে’তে দেয়া মন্তব্যে ওই হুমকি দিয়েছেন ম্যাক্রন। তিনি বলেছেন, এটা এখন পরিষ্কার যে লুকাশেঙ্কোকে বিদায় নিতে হবে। এটা হলো ক্ষমতার সঙ্কট। এটা এমন এক কর্তৃত্বপরায়ণ ক্ষমতা, যা গণতন্ত্রের যুক্তি গ্রহণ করে না। তারা শক্তি দিয়ে ক্ষমতাকে ধরে রেখেছে।
তাই তাকে বিদায় নিতেই হবে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন আল জাজিরা।  
ম্যাক্রন এমন সময়ে এ মন্তব্য করলেন যখন বেলারুশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ভøাদিমির মাকেই পশ্চিমা দেশগুলোর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। তিনি বলেছেন, বেলারুশে বিশৃংখলা ও নৈরাজ্য সৃষ্টির চেষ্টা করেছে পশ্চিমারা। জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেছেন, আমাদের দেশের পরিস্থিতিকে অস্থিতিশীল করার প্রচেষ্টা দেখতে পাচ্ছি। আমাদের আভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ, অবরোধ অথবা বেলারুশের বিরুদ্ধে অন্য যেকোনো বিধিনিষেধের বিপরীত জবাব দেয়া হবে এবং তা হবে সবার জন্যই ক্ষতিকর।
গত ৯ই আগস্ট দেশটিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হয়। নির্বাচনে বিরোধী দলীয় নেত্রী সভেতলানা টিকানোভস্কায়া বিজয়ী দাবি করলেও ভূমিধস বিজয় পান ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট লুকাশেঙ্কো। এর প্রতিবাদে তখন থেকেই রাস্তায় বিক্ষোভ করছেন লাখো মানুষ। তাদের বিরুদ্ধে নৃশংস দমনপীড়ন শুরু করেছেন লুকাশেঙ্হো। এ পর্যন্ত প্রায় ১২ হাজার মানুষকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় পশ্চিমা দুনিয়া থেকে নিন্দার ঝড় উঠেছে। কিন্তু লুকাশেঙ্কোকে সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে মক্কো।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর