× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৯ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার

শাহজাদপুরে ১৩৪ বস্তা সরকারি চালসহ আটক ৩

বাংলারজমিন

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি | ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার, ৮:৪৩

শাহজাদপুর উপজেলার কৈজুরী ইউনিয়নের দরিদ্রদের জন্য বরাদ্দ খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১০ টাকা কেজি দরের ১৩৪ বস্তা চাল (৮ মেট্রিক টন) বোঝাই ট্রাকসহ ৩ জনকে আটক করেছে থানা পুলিশ। আটককৃতরা হলো- উল্লাপাড়া উপজেলার সোনতলা গ্রামের মতিয়ার রহমানের ছেলে ট্রাকচালক রুবেল (৩০), একই গ্রামের মোক্তার হোসেনের ছেলে ট্রাকের হেলপার আলম (৩৬) ও নাগরৌহা গ্রামের কামরুল ইসলামের ছেলে রবিউল ইসলাম (৪৫)। কালোবাজারে বিক্রি করা খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ওই চাল সৌরভ এন্টারপ্রাইজের ট্রাক (সিরাজগঞ্জ ড-১১-০১৩৯) যোগে গত রোববার ভোরে কৈজুরী থেকে উল্লপাড়ার ব্যবসায়ী মনিরুল ইসলামের দোকানে নিয়ে যাওয়া  হচ্ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানা পুলিশ শাহজাদপুর পৌর এলাকার করতোয়া সেতু থেকে ট্রাকসহ ৩ জনকে আটক করে। দরিদ্রদের জন্য ১০ টাকা কেজি দরের ওই চাল কৈজুরী ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলামের ঘনিষ্ঠ সহযোগী ডিলার পেশকার আলী, আব্দুল হাই প্রামাণিক, আজম আলী ও আব্দুল রশিদের গুদাম থেকে পাচার করা হচ্ছিল বলে এলাকাবাসী অভিযোগ করছেন। জানা গেছে, কৈজুরী গ্রামের সেলিম চৌধুরী, জয়পুরা গ্রামের আলামিন হোসেন ও কচুয়া গ্রামের আক্কাস আলী ডিলারের কাছ থেকে স্বল্পমূল্যে কিনে অধিক মূল্যে ওই চাল উল্লাপাড়ার ব্যবসায়ী মনিরুল ইসলামের কাছে বিক্রি করে। একপর্যায়ে গত রোববার ভোরে কৈজুরী বাজার সংলগ্ন কবরস্থান, ঋষিপাড়া ও খামার গ্রামের ৩টি স্থান থেকে ওই চাল ট্রাকে উঠানো হয়। এ ব্যাপারে শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিদ মাহমুদ খান জানান, কৈজুরী বাজার থেকে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১৩৪ বস্তা চাল ট্রাক যোগে উল্লাপাড়া পাচার করা হচ্ছে মর্মে খবর পেয়ে পুলিশ করতোয়া সেতুর উপর থেকে  ট্রাকসহ ৩ জনকে আটক করে।
এদিকে খবর পেয়ে রোববার সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ্‌ মো. শামসুজ্জোহা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন। এ ব্যাপারে গতকাল সোমবার থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ফজলে আশিকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, চাল পাচারের ঘটনায় উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক  মনিরুল হক বাদী হয়ে ৬ জনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ে করেছেন। এদিকে দরিদ্রদের জন্য বরাদ্দ চাল পাচারের সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শান্তির দাবিতে রোববার এলাকাবাসী বিক্ষোভ মিছিল করেছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর