× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৩১ অক্টোবর ২০২০, শনিবার

সৈয়দপুরে কিশোরী ধর্ষণ অভিযোগে অটোচালক গ্রেপ্তার

বাংলারজমিন

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি | ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার, ৮:৪৫

নীলফামারীর সৈয়দপুরে কিশোরীকে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে গলাটিপে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে রিপন নামের এক অটোচালককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সে উপজেলার পাটোয়ারী পাড়ার মনসুরের মোড় এলাকার খয়বরের ছেলে। গত রোববার সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পূর্ব পাটোয়ারী পাড়ার মৃত তোফাজ্জল হোসেনের মেয়ে তাহেরা বেগম  (১৭) গার্মেন্টকর্মী। গত ২৬শে সেপ্টেম্বর  ফ্যাক্টরি থেকে কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে সৈয়দপুর শহরের চাউল মার্কেট এলাকায় পৌঁছালে প্রবল বর্ষণ শুরু হয়।
এ সময় পাটোয়ারী পাড়া যাওয়ার জন্য অপেক্ষা করলে অটোচালক রিপন তার অটোতে বাড়ি যাওয়ার জন্য বলে। কিন্তু কিশোরী একা থাকায় তার সঙ্গে যেতে রাজি হয় নি। বৃষ্টি বাড়তে থাকায় অনেকক্ষণ অপেক্ষা করেও কোনো যানবাহন না পেয়ে বাধ্য হয়ে ওই অটোতেই উঠে। পথিমধ্যে ফাঁকা স্থানে এসে রিপন অটো থামিয়ে কিশোরীকে জোড়পূর্বক শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে।
এতে বাধা দেয়ায় অটোচালক  তার গলা চেপে ধরে এবং চড় থাপ্পড় ও কিলঘুষি মারতে থাকে। এ সময় রিপন মেয়েটিকে টেনে হিচড়ে পাশের বাঁশঝাড়ে নিয়ে যেতে থাকে। পরে মেয়েটির চিৎকার শুনে আশেপাশের লোকজন ছুটে এলে রিপন অটো নিয়ে পালিয়ে যায়। উপস্থিত লোকজন কিশোরীকে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করে। বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন আছে। এ ঘটনায় ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে অটোচালক রিপনকে আসামি করে সৈয়দপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে সৈয়দপুর থানার এসআই দিলীপ কুমার সঙ্গীয় ফোর্সসহ অভিযান চালিয়ে পাটোয়ারী মোড় থেকে রিপনকে গ্রেপ্তার করে। সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল হাসনাত খান অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সকালে কিশোরীর মা বাদী হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। সে অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষণচেষ্টার আসামিকে  গ্রেপ্তার করেছে।  জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে নীলফামারী জেলাহাজতে পাঠানো হয়েছে।
 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর