× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৩১ অক্টোবর ২০২০, শনিবার
সিএনএনের রিপোর্ট

ভারতে ৬ কোটিরও বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত!

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার, ৫:২২

ভারতে এখন পর্যন্ত ৬ কোটি ৩০ লাখেরও বেশি মানুষ কোভিড নাইন্টিনে আক্রান্ত হয়েছেন বলে ধারণা করছে দেশটি কর্তৃপক্ষ। এটি দেশটিতে শনাক্ত হওয়া কোভিড-১৯ রোগির সংখ্যার ১০ গুনেরও বেশি। এ নিয়ে দেশজুড়ে একটি জরিপ চালানো হয়েছিল। মঙ্গলবার 'ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিকেল রিসার্চ' ওই জরিপের ফলাফল প্রকাশ করে। তাতেই এই বিস্ময়কর তথ্য উঠে আসে। এ খবর দিয়েছে সিএনএন।

খবরে জানানো হয়, ভারতজুড়ে ৭০০টিরও অধিক ওয়ার্ড ও গ্রামে ২৯ হাজার মানুষের ওপর ওই জরিপ চালানো হয়েছিল। সেপ্টেম্বর মাসের মাঝামাঝি সময়ে চালানো ওই জরিপে অংশগ্রহণকারীদের এন্টিবডি টেস্ট করা হয়েছে। এতে জানা গেছে, প্রতি ১৫ জনের একজনের দেহে করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে কার্যকরি এন্টিবডি রয়েছে।
এ থেকে ধারণা করা হচ্ছে, কোনো না কোনো সময় তারা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। উল্লেখ্য, জরিপে অংশগ্রহণকারীদের বয়স ১০ বছরের বেশি ছিল।

ভারতের মোট জনসংখ্যা ১৩০ কোটির বেশি। এরমধ্যে প্রায় ৯৭ কোটির বয়সই ১০ বছরের বেশি। এই সংখ্যার প্রতি ১৫ জনে যদি একজন করোনা আক্রান্ত হয়ে থাকেন তাহলে তা জাতীয় পর্যায়ে গিয়ে দাঁড়ায় ৬ কোটি ৩০ লাখ ৭৮ হাজার জনে। অথচ, ভারতে এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন এর দশ ভাগের একভাগ মানুষ। বুধবার পর্যন্ত দেশটিতে মোট আক্রান্ত ছিল ৬০ লাখের সামান্য বেশি। এরমধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৯৬ হাজার জনের। এই জরিপের ফল জানাচ্ছে, প্রতি একজন শনাক্তের পেছনে শনাক্তহীনভাবে আরো অন্তত ২৬ থেকে ৩২ জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত রয়েছেন। দেশটির বিশেষজ্ঞরা এ নিয়ে মাসের পর মাস সরকারকে সাবধান করে গেছে। প্রথম থেকেই বলা হচ্ছিল যে, ভারতে যে সংখ্যক করোনা রোগি ধরা পড়ছে বাস্তবে তার সংখ্যা কয়েকগুন বেশি। কারণ হিসেবে বিশেষজ্ঞরা বলেন, ভারতীয়দের যথেষ্ট পরিমাণে পরীক্ষা করা হচ্ছে না। পরীক্ষার ফলাফলেও রয়েছে অত্যাধিক হারে ভুল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর