× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৩ অক্টোবর ২০২০, শুক্রবার

কমলগঞ্জে কলেজ পড়ুয়া চা শ্রমিক সন্তানের আত্মহত্যা

বাংলারজমিন

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি | ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার, ৮:০৬

কমলগঞ্জের কুরমা চা বাগানে গলায় ফাঁস দিয়ে মনি কর্মকার (১৮) নামে এক কলেজ পড়ুয়া চা শ্রমিক সন্তান আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কুরমা চা বাগানের গাংকিনার শ্রমিক বস্তির নিজ বসত ঘর তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সে কমলগঞ্জ সরকারি গণ মহাবিদ্যালয়ের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রী ও কুরমা চা বাগানের শ্রমিক হরিলাল কর্মকারের মেয়ে।
বুধবার বেলা ১১টায় নিহতের মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য মৌলভীবাজার মর্গে পাঠায় পুলিশ।
কলেজ পড়ুয়া চা শ্রমিক সন্তান মণির আত্মহত্যা রহস্যজনক বলে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনার পর থেকে বাগানের এক শ্রমিক নেতার সাথে পরকীয়ার গুঞ্জন চাউর হচ্ছে।
চা শ্রমিক ও পুলিশ জানায়, কলেজ ছাত্রী মণির বাবা-মা দুই জনই চা বাগানের শ্রমিক। প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার সকালে চা বাগানের প্লান্টেশনে কাজে যান। কাজ শেষে বিকেলে বসত ঘরে ফিরে দেখেন বসত ঘরের একটি কক্ষের চালার সাথে গলায় দঁড়ি দিয়ে মণির ঝুলন্ত মরদেহ। পরে বাগান ব্যবস্থাপকের মাধ্যমে বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়। খবর পেয়ে কমলগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সুধীন চন্দ্র দাশের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল সন্ধ্যায় লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন।
বুধবার বেলা ১১টায় ময়না তদন্তের জন্য লাশ মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়।
কমলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আরিফুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর