× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৩১ অক্টোবর ২০২০, শনিবার

সৈয়দপুরে অটোচালকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

বাংলারজমিন

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি | ১ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৯:২৪

এক অটোচালকের বিরুদ্ধে গার্মেন্টকর্মীকে ধর্ষণের রেশ কাটতে না কাটতেই সৈয়দপুরে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টায় আরেক অটোচালকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণের চেষ্টাকালে একই বাড়ির ভাড়াটিয়া ওই চার্জার অটোচালকে হাতেনাতে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয় এলাকাবাসী। ঘটনাটি ঘটেছে ৩০শে সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ১০টায় শহরের নয়াটোলা কলিমনগর এলাকায়। আটক যুবকের নাম মামুন ইসলাম (২১)। সে ঢাকার নারায়ণগঞ্জ এলাকার মো. নুর ইসলামের ছেলে। মামলা সূত্রে জানা যায়, শহরের উল্লিখিত এলাকায় শেখ সালাউদ্দীন শেখের বাড়িতে ভাড়া থাকে মামুন। পাশের রুমে উত্তরা ইপিজেড কর্মী স্বামী পরিত্যক্তা মহিলাও তার মেয়েকে নিয়ে ভাড়া থাকেন। মেয়েটি স্থানীয় এক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ে।
বুধবার সকালে মেয়েটির মা ইপিজেডে চলে যায় এবং মেয়েটি একাই বাসায় অবস্থান করছিল। এমতাবস্থায় সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে প্রতিবেশী অটোচালক মামুন মেয়েটিকে একা পেয়ে ঘরে ঢুকে জাপটে ধরে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। এসময় মেয়েটি আর্তচিৎকার করলে লোকজন বাড়ির আশেপাশে জড়ো হয়। খবর পেয়ে পুলিশ এসে দরজা ভেঙ্গে দুজনকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। পরে মেয়েটির মা বাদী হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল হাসনাত খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ফোর্স পাঠিয়ে দিয়ে মেয়েকে উদ্ধারসহ ছেলেটিকে আটক করা হয়েছে। পরে মেয়েটির মায়ের ধর্ষণ চেষ্টার লিখিত অভিযোগ দেয়ায় গ্রেপ্তার আসামিকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর