× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৩১ অক্টোবর ২০২০, শনিবার
যুবলীগ নেতা ইউসুফ মনি হত্যাকাণ্ড

দুই বছরেও মূল আসামিদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, কিশোরগঞ্জ থেকে | ১ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৯:২৫

কিশোরগঞ্জে চাঞ্চল্যকর যুবলীগ নেতা ইউসুফ মনি হত্যা মামলার মূল আসামিরা গ্রেপ্তার না হওয়ায় ক্ষোভ জানিয়েছেন এলাকাবাসী। তারা বুধবার দুপুরে শহরের আখড়াবাজার এলাকায় মানববন্ধন করে দ্রুত মূল আসামি নয়ন, নিয়াজ, রাজিব, সানা ও মোবারকসহ বাকি আসামিদের গ্রেপ্তার করে বিচারের মুখোমুখি করার দাবি জানিয়েছেন। ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধনে কিশোরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মাহমুদ পারভেজ, নিহত যুবলীগ নেতার ছোটভাই কিশোরগঞ্জ পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ইয়াকুব সুমন ও যুবলীগ নেতা পল্লব করসহ স্থানীয় গণ্যমান্য লোকজন বক্তৃতা করেন।

পরে মিছিল করে তারা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে গিয়ে একটি স্মারকলিপি দেন।
২০১৯ সালের ২৫শে জানুয়ারি রাতে শহরের রথখলা এলাকার ঈশা খাঁ সড়কে সন্ত্রাসীরা যুবলীগ নেতা মনিকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করে। এ সময় কুপিয়ে জখম করা হয় তার ছোট ভাই কাউন্সিলর ইয়াকুব সমুনকে। এ ঘটনায় নিহত যুবলীগ নেতার স্ত্রী আবেদা আক্তার শিখা বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসীদের আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
বাদীপক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়, পুলিশ বিভিন্ন সময় অভিযান চালিয়ে ২১ জন আসামিকে গ্রেপ্তার করলেও মূল আসামিদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি। মূল আসামিরা গ্রেপ্তার না হওয়ায় তাদের মধ্যে হতাশা ও ক্ষোভ রয়েছে।
এ বিষয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কিশোরগঞ্জ মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মিজানুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ইউসুফ মনি হত্যা মামলায় পুলিশের কোনো গাফিলতি নেই। মামলায় ১২ জনকে আসামি করা হলেও পুলিশ তদন্তে আরো অনেকের সম্পৃক্ততা পায়।
এ পর্যন্ত মোট ২১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সম্প্রতি এ মামলায় ৩২ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়া হয়েছে। এখন আদালত থেকে পলাতকদের ধরতে ওয়ারেন্ট বের হবে। এরপর পুলিশ তাদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালাবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর