× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৩১ অক্টোবর ২০২০, শনিবার

কক্সবাজার সৈকতে তরুণী ধর্ষিত, ধর্ষক গ্রেপ্তার

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার থেকে | ১ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১০:৩৪

কক্সবাজার সমুদ্রপাড়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছে এক তরুণী। এ ঘটনায় ওসমান সরওয়ার (২৬) নামে অভিযুক্ত যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সে কক্সবাজার শহরের কলাতলী সংলগ্ন আদর্শগ্রাম এলাকার আবুল বশরের ছেলে।

ভিকটিম তরুণীর বাড়ি চকরিয়া উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নে।

তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের লাবণী পয়েন্ট সংলগ্ন বিজিবির উর্মি রেস্তোরাঁর পাশে নির্জন স্থানে এ ঘটনা ঘটে।
 সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজার সদর থানার ওসি শেখ মুনীর-উল গীয়াস।
অভিযোগের বরাত দিয়ে ওসি মুনীর-উল গীয়াস বলেন, ভুক্তভোগী তরুণীর সঙ্গে মোবাইল ফোনে জনৈক ব্যক্তির পরিচয় ঘটে। এর আগে পরিচয়ের সূত্র ধরে বুধবার বিকালে চকরিয়া থেকে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত এলাকায় প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে যায় সে। সৈকতে পৌঁছার পর থেকে প্রেমিকের মোবাইল ফোন বন্ধ পায়। পরে দীর্ঘ সময় ধরে অপেক্ষার পর রাত নেমে এলে সৈকতের লাবণী পয়েন্ট এলাকায় পর্যটক ছাতা (কিটকট) ভাড়া নেয়।
তরুণীর বরাত দিয়ে ওসি আরও বলেন, রাতের এক পর্যায়ে তরুণীকে নিরাপদ স্থানে পৌঁছে দেয়ার কথা জানায় ওই যুবক। পরে বিজিবির উর্মি রেস্তোরা পাশে নির্জন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে।
এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার সকালে ভিকটিম তরুণী থানায় লিখিত অভিযোগ দেন।

ওসি মুনীর-উল গীয়াস বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর বৃহস্পতিবার দুপুরে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের লাবণী পয়েন্ট অভিযুক্ত ওসমান সরওয়ারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত যুবককে আসামি করে মামলা দায়ের হয়েছে।।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Shafiur Rahman
১ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১১:৩৩

Need double musulmai.Direct cut the lingo.

Kazi
১ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৮:৪০

করোনার চাইতেও মহামারী আকার ধারণ করেছে ধর্ষণ । কারন উপযুক্ত শাস্তির ( লিঙ্গ) কর্তন আইন নাই দেশে। আদালত তাই যা আইন আছে সেই শাস্তি দেয়। যা ধর্ষণকারীদের কাছে তুচ্ছ।

অন্যান্য খবর