× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৩০ নভেম্বর ২০২০, সোমবার

টেস্ট পরীক্ষার ভিত্তিতে এইচএসসি’র ফলাফল মূল্যায়ন চেয়ে আইনি নোটিশ

শিক্ষাঙ্গন

স্টাফ রিপোর্টার | ৮ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১২:০৮
ফাইল ছবি

জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষার ফল মূল্যায়ন করে এইচএসসি’র ফলাফল নির্ধারণ করার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার দাবি জানিয়ে এক পরীক্ষার্থীর পক্ষ থেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্টদের লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে। ওই শিক্ষার্থীর দাবি, টেস্ট পরীক্ষার মাধ্যমে এইচএসসি’র ফলাফল মূল্যায়ন করলে প্রকৃত মূল্যায়নটি হবে।
 
আজ বৃহস্পতিবার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে শতাব্দী রায় নামের এক এইচএসসি পরীক্ষার্থীর পক্ষে এই নোটিশ পাঠান সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার শিহাব উদ্দিন খান। ব্যারিস্টার শিহাব উদ্দিন খান বলেন, শতাব্দী রায় সাভারে অবস্থিত মোফাজ্জল-মোমেনা চাকলাদার মহিলা কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকের শিক্ষার্থী এবং ২০২০ সনের উচ্চ মাধ্যমিকের পরীক্ষার্থী।
 
তিনি আরো বলেন, জেএসসি ও এসএসসির ওপর ভিত্তি করে ফলাফল প্রস্তত করলে অনেক শিক্ষার্থীর ভালো প্রস্তুতি থাকার পরও পূর্বের জিপিএ-এর কারণে আশানুরূপ ফলাফল থেকে বঞ্চিত হবেন। আমরা মনে করি, সরকার যদি টেস্ট পরীক্ষার ভিত্তিতে এইচএসসি’র ফলাফল মূল্যায়ন করেন, তাহলে প্রকৃত মূল্যায়ন হবে।
 
শিক্ষা মন্ত্রণালয় ছাড়াও মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বিভাগের সচিব, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এবং ৯টি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানকে বিবাদী করে এই নোটিশ পাঠানো হয়। আগামী ৩ দিনের মধ্যে দাবি মেনে না নিলে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে।
 
নোটিশে আরো বলা হয়েছে, জেএসসি ও এসএসসির ফলাফলের গড় করার কারণে একদিকে যেমন অনিয়মিত, একাধিক বিষয়ে অকৃতকার্য, প্রস্তুতিহীন শিক্ষার্থীর জন্য সুযোগ তৈরি হবে, তেমনি কোনো কারণে জেএসসি কিংবা এসএসসিতে কম জিপিএ পাওয়া মেধাবী, পরিশ্রমী শিক্ষার্থীরা তাদের প্রচেষ্টা প্রমাণে ব্যর্থ হবে। পূর্বের ফলাফলের গড় করে পরবর্তী পরীক্ষার ফলাফল নির্ধারণ এক ধরনের জোরপূর্বক এবং বেআইনি, যা দায়িত্বশীল কর্তৃপক্ষ আইনত করতে পারেন না।
 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Amir
৮ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৫:৫৯

ওই শিক্ষার্থীর দাবি, টেস্ট পরীক্ষার মাধ্যমে এইচএসসি’র ফলাফল মূল্যায়ন করলে প্রকৃত মূল্যায়নটি হবে।-------টেস্ট পরীক্ষা টা প্রতিষ্ঠান কেন্দ্রিক, এই প্রতিষ্ঠান কেন্দ্রিক পরীক্ষার উপর নির্ভর করে জাতীয় পর্যায়ের (এইচএসসি) সনদ দেওয়া কতটুকু যুক্তিযুক্ত?

Amir
৮ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৫:২১

ওই শিক্ষার্থীর দাবি, টেস্ট পরীক্ষার মাধ্যমে এইচএসসি’র ফলাফল মূল্যায়ন করলে প্রকৃত মূল্যায়নটি হবে।-------টেস্ট পরীক্ষা টা প্রতিষ্ঠান কেন্দ্রিক, এই প্রতিষ্ঠান কেন্দ্রিক পরীক্ষার উপর নির্ভর করে জাতীয় পর্যায়ের (এইচএসসি) সনদ দেওয়া কতটুকু যুক্তিযুক্ত?

ম নাছিরউদ্দীন শাহ
৮ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৩:০০

কি হচ্ছেন না সবকিছুইতো স্বাভাবিক দেখছি। পরিক্ষা নিতে এত কৌশল কেন টুল টেবিল পাশ এই নীতির বিরুদ্ধে ছাত্রদের তীব্র প্রতিবাদ নেই। গুরুত্বপূর্ণ পরিক্ষা এইচ এসসি সরকারের এখনো বিবেচনা করার সুযোগ আছে। মহামারী ভয়াবহতা শান্ত। ছাত্র শিক্ষক জ্ঞানী গুনিরা শিক্ষা মন্ত্রী মহোদয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব প্রাপ্তরা পরিক্ষার্থীদের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করুন। অটো পাশের প্রতিক্রিয়া ছাত্রদের জীবনে কতটুকু প্রভাব পড়বে??????।

আবুল কাসেম
৮ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১২:২২

কলেজ কর্তৃপক্ষ নিজেদের কলেজের সুনাম রক্ষার জন্য, অনেক কলেজ সুনাম বৃদ্ধির মানসিকতা থেকে এবং নিজেদের কলেজের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কাছে ভালো থাকার জন্য টেস্ট পরীক্ষার প্রকৃত রেজাল্ট বোর্ড কর্তৃপক্ষকে দেবেন কিনা তার নিশ্চয়তা কি ? বিশেষকরে স্বায়ত্তশাসিত প্রাইভেট কলেজগুলো যেখানে কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা নিয়ে থাকেন তাঁরা চাবেন না শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কাছে প্রশ্নবিদ্ধ হতে। সব কলেজ নন, কিন্তু কেউ যদি টেস্টের রেজাল্ট নিয়ে বানিজ্য করতে চান তাহলে তো নিশ্চিত করে বলা যায়, ভালো কলেজের ভালো শিক্ষার্থীরা বঞ্চিত হবেন। কারন সবাই না চাইলেও কোনো কোনো কলেজ চাইতেও পারেনা নিজেদের কলেজের ফলাফল ভালো হোক। শিক্ষা নিয়ে বানিজ্যের অনেক অভিযোগ রয়েছে। অতএব বোর্ড পরীক্ষার ফলাফল নির্ভরযোগ্য এবং বিশ্বাসযোগ্য বিধায় জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে এইচএসসির ফলাফলের চূড়ান্ত ফায়সালা করা যুক্তিযুক্ত। যাদের জেএসসি ও এসএসসি 'র রেজাল্ট ভালো নয় বা বেশি ভালো নয় বা মোটামুটি ভালো নয় তারা এইচএসসি পরীক্ষায় যে খুব ভালো করবে তার নিশ্চয়তা কি ? অতএব করোনা মহামারির মধ্যে সকলের মঙ্গলের কথা চিন্তা করে বোর্ড ও মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত মেনে নেয়াটাই যুক্তিযুক্ত।

Md. Harun al-Rashid
৮ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১:০০

প্রতিবেশী রাষ্টের অধিকাংশ রাজ্যে করোনা পরিস্হতি আমাদের তুলনায় অনেক খারাপ। তবুও তারা শিক্ষার সকল স্তরে পরীক্ষা নিয়েই মূল্যায়ন করছে। শিক্ষার্থী ও পরীক্ষার্থী হিসেবে শতাব্দী রায়ের দাবীর সপক্ষে ন্যায্যতা আছে। একেবারে গড়ে সকলকে গড়িয়ে গড়িয়ে না নিয়ে নূন্যতম ও কম স্বাস্হ্য ঝুকি হয় এমন একটা উপায় বের করুন। নয়তো 'খোলা পুস্তক' বা open Book পদ্ধতি প্রয়োগ করে স্ব স্ব বাড়িতে অন্তত বাংলা, ইংরেজি ও তিনটি আব্যশ্যিক বিষয়ের গ্রপ ভিত্তিক পরীক্ষা নেয়া যেতে পারে। শিক্ষার্থীরা বিশেষ বিবেচনা বা দয়া নয় ন্যায্যতা চায়। তাই দিতে সবিনয় অনুরোধ করি।

অন্যান্য খবর