× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৩০ নভেম্বর ২০২০, সোমবার
সেশনজট নিরসন চায় শিক্ষার্থীরা

উত্তাল বেরোবি

শিক্ষাঙ্গন

বেরোবি প্রতিনিধি | ১৩ অক্টোবর ২০২০, মঙ্গলবার, ৪:৩০

সেশনজট নিরসনে দ্রুত অনলাইন ক্লাস চালুকরণের দাবিতে প্রশাসনিক ভবন অবরুদ্ধ করে দ্বিতীয় দিনের মতো অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের (২০১৪-১৫) শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা। এর আগে একই দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা।
 
আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২টা থেকে প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের গেট বন্ধ করে এ অবস্থান কর্মসূচি পালন করে শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত এ কর্মসূচি চলবে বলে জানান তারা। পরে ভিসি ক্লাস শুরু করার আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা প্রশাসিক ভবন অবমুক্ত করে চলে যায়।

ইংরেজী বিভাগের শিক্ষার্থীরা জানান, অনেকে সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে এমনকি আমাদের (বেরোবি) বিশ্ববিদ্যালয়ে বেশ কিছু বিভাগে অনলাইনে ক্লাস চলছে। অথচ সাত মাস পেরিয়ে গেলেও ক্লাস শুরু করতে পারেনি ইংরেজী বিভাগ।

চার বছরে আট সেমিস্টারে অনার্স শেষ হওয়ার কথা থাকলেও ছয় বছরে মাত্র ছয় সেমিস্টার সেমিস্টার সম্পন্ন হয়েছে বলে জানান সপ্তম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা আরো বলেন, অনার্স সম্পন্ন না হওয়ার কারণে আমরা কাঙ্খিত জায়গায় চাকরির জন্য আবেদন করতে পারছিন না। প্রায় তিন বছরের এ সেশনজটের পেছনে শিক্ষকদের হেয়ালিপনা ও দায়িত্বহীনতাকেই দায়ী করছেন তারা।
ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ৭ বছরে চতুর্থ বর্ষে, অনার্স শেষ হবে কবে? হতাশার নাম ইংরেজি বিভাগ।

সার্বিক বিষয়ে ভিসি ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন কিংবা শিক্ষামন্ত্রণালয় থেকে পুরোপুরি অনলাইনে ক্লাস নেয়ার ব্যাপারে কোনো নির্দেশনা দেয়া হয়নি। আগামী ১৫ই অক্টোবর পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিগণকে নিয়ে ইউজিসিতে মিটিং আছে। মিটিংয়ে ক্লাসের বিষয়ে যে সিদ্ধান্ত হবে তা পরবর্তীতে জানানো হবে।

উল্লেখ্য, গতকাল সোমবার দ্রুত ফলাফল প্রকাশ, অনলাইনে ক্লাস চালুকরণ ও একাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রকাশের দাবিতে প্রশাসনিক ভবনে তালা ঝুলিয়ে অবস্থা কর্মসূচি পালন করে ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের আটটি ব্যাচের শতাধিক শিক্ষার্থী। পরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও বিভাগীয় প্রধান তাদের দাবিগুলো মেনে নেয়ার আশ্বাস দিলে তারা চলে যায়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর