× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৬ নভেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার

করোনায় আরো ১৪ জনের মৃত্যু শনাক্ত ১২৭৪

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১৯ অক্টোবর ২০২০, সোমবার, ৯:৩৮

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো ৫ হাজার ৬৬০ জনে। নতুন  করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ২৭৪ জন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ৩ লাখ ৮৮ হাজার ৫৬৯ জন শনাক্ত হলেন। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৬৭৪ জন এবং এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ৩ হাজার ৯৭২ জন। দেশে করোনা সংক্রমণ শুরুর পর ৪২তম সপ্তাহে নমুনা পরীক্ষা ও শনাক্তের হার বাড়লেও সুস্থতার ও মৃত্যুর হার কমেছে। গতকাল স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনা সংক্রান্ত নিয়মিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।
এতে আরো জানানো হয়, ১১০টি পরীক্ষাগারে গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১২ হাজার ১৮৯টি এবং নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১১ হাজার ৮৬৬টি। এখন পর্যন্ত ২১ লাখ ৬৩ হাজার ৫৬৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।
নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১০ দশমিক ৭৪ শতাংশ এবং এখন পর্যন্ত ১৭ দশমিক ৯৬ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৭৮ দশমিক ২৩ শতাংশ এবং মৃত্যু হার ১ দশমিক ৪৬ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ১২ জন পুরুষ এবং ২ জন নারী। এখন পর্যন্ত পুরুষ মারা গেছেন ৪ হাজার ৩৫৭ জন এবং নারী ১ হাজার ৩০৩ জন। বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ৬০ বছরের উপরে ১০ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৩ জন এবং ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ১ জন রয়েছেন। বিভাগ বিশ্লেষণে দেখা যায়, মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৬ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১ জন, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগে ২ জন করে এবং বরিশাল, সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগে ১ জন করে রয়েছেন। ২৪ ঘণ্টায় ১৪ জনই হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ১১১ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১২ হাজার ২৬৫ জন। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ১৬৬ জন। এখন পর্যন্ত ছাড়া পেয়েছেন ৭১ হাজার ৯২৬ জন। এখন পর্যন্ত আইসোলেশন করা হয়েছে ৮৪ হাজার ১৯১ জনকে।
প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টিন মিলে ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ৪৯২ জনকে। কোয়ারেন্টিন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ছাড়া পেয়েছেন ৫৮৪ জন, এখন পর্যন্ত ছাড়া পেয়েছেন ৫ লাখ ৬ হাজার ৮৮ জন। এখন পর্যন্ত কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ৫ লাখ ৪৫ হাজার ৮৬৪ জনকে। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে আছেন ৩৯ হাজার ৭৭৬ জন। করোনা সংক্রান্ত এ পর্যন্ত ফোনকল এসেছে ২ কোটি ১৮ লাখ ২১ হাজার ২৬৯টি।
এদিকে, দেশে করোনা সংক্রমণ শুরুর পর ৪২তম সপ্তাহে নমুনা পরীক্ষা ও শনাক্তের হার বাড়লেও সুস্থতার ও মৃত্যুর হার ৪২তম সপ্তাহ থেকে হ্রাস পেয়েছে। সপ্তাহের ভিত্তিতে তুলনামূলক বিশ্লেষণে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, ৪১তম সপ্তাহে সপ্তাহে নমুনা পরীক্ষা হয়েছিল ৮১ হাজার ৭২৩টি। এই সময় শনাক্ত হয়েছে ৯ হাজার ৫০৮ জন, সুস্থ হয়েছে ১১ হাজার ২৯৬ জন এবং মারা গেছেন ১৭৫ জন। ৪২তম সপ্তাহে নমুনা পরীক্ষা হয়েছিল ৯০ হাজার ১৭৪টি। এই সময় শনাক্ত হয়েছে ১০ হাজার ২২২ জন, সুস্থ হয়েছেন ১০ হাজার ৯৩৩ জন এবং মারা গেছেন ১৪৬ জন। তুলনামূলক বিশ্লেষণে দেখা যায়, নমুনা পরীক্ষা ৪১তম সপ্তাহের চেয়ে ১০ দশমিক ৩৪ শতাংশ বেড়েছে। এ ছাড়া শনাক্ত বেড়েছে ৭ দশমিক ৫১ শতাংশ, সুস্থতা কমেছে ৩ দশমিক ২১ শতাংশ আর মৃত্যু কমেছে ১৬ দশমিক ৫৭ শতাংশ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর