× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৬ নভেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার

রূপগঞ্জে মিথ্যা মামলায় হয়রানির অভিযোগ

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, রূপগঞ্জ থেকে | ২৭ অক্টোবর ২০২০, মঙ্গলবার, ৮:৪২

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মিথ্যা মামলা দিয়ে পুলিশি হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। এতে করে পুলিশের ভয়ে একটি গ্রাম পুরুষশূন্য হয়ে পড়েছে। উপজেলার দাউদপুর ইউনিয়নের খৈশার এলাকায় ঘটে এ ঘটনা। মামলার শিকার ভুক্তভোগীরা জানায়, খৈশার এলাকার মোস্তফার ছেলে অস্ত্র মামলাসহ এক ডজনের অধিক মামলার আসামি ও চিহ্নিত সন্ত্রাসী আঃ ছাত্তার ওরফে এস টি ছাত্তার দীর্ঘদিন এলাকায় বিভিন্ন ধরনের অপকর্ম করে আসছে। তার এ অপকর্মের বিরোধিতা করায় বিভিন্ন সময় এলাকার অনেক ব্যক্তির ওপর হামলা ও মামলা দিয়ে হয়রানি করেছে। এদিকে গত ২০শে অক্টোবর দাউদপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই ইউপি সদস্য প্রার্থীর কর্মী সমর্থকদের মাঝে সংঘাতকে কেন্দ্র করে এস টি ছাত্তার নিজ স্বার্থ চরিতার্থ  করার উদ্দেশ্যে নিজে বাদী হয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ তার অপকর্মের বিরোধকারী খৈশার এলাকার হারিজুল, নজরুল, আনারুল, জাইদুল, মফিজুল, আমিনুল, রায়হানসহ ১০ জন নামীয়সহ আরো অজ্ঞাতনামা ৪ জনকে আসামি করে রূপগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলায় এজাহারে এস টি ছাত্তারের শ্যালক ইয়াছিনসহ আরো ২ জনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে আহতদের কাছ থেকে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ করা হয়েছে। এ ছাড়া আহতদের রূপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।
অথচ উল্লিখিত ব্যক্তিরা কোনোভাবে আহত অথবা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে এমন কোনো প্রমাণাদি কেউ দিতে পারেনি। এদিকে তার দায়ের করা মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তার ও পুলিশি হয়রানির আতঙ্কে খৈশার গ্রাম পুরুষশূন্য হয়ে পড়েছে।
এ ব্যাপারে মামলার বাদী আঃ ছাত্তারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ মামলার ব্যাপারে কোনো কথা বলতে রাজি হননি।
এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ওসি মাহমুদুল হাসান বলেন, কেউ যদি মিথ্যা মামলা দায়ের করে থাকে আর সেটা যদি তদন্তে প্রমাণিত হয় তাহলে আমরা বাদীর বিরুদ্ধে আদালতে উল্টো প্রতিবেদন দিবো। উল্লিখিত মামলায় কাউকে হয়রানি করা হবে না বলেও আশ্বস্ত করেন ওসি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর