× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৫ নভেম্বর ২০২০, বুধবার

মৌলভীবাজারে এম সাইফুর রহমান স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, মৌলভীবাজার থেকে | ২৭ অক্টোবর ২০২০, মঙ্গলবার, ৯:১৩

 ‘স্মৃতি জাগানিয়া এক কিংবদন্তী পুরুষ এম সাইফুর রহমান’ নামীয় স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। এম সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদ বাংলাদেশ এর আয়োজনে স্মরণিকার দ্বিতীয় সংস্করণের মোড়ক উন্মোচন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। রোববার রাতে মৌলভীবাজার সদর উপজেলার নিত্বেশর, গিয়াসনগর এলাকায় পাঁচ তারকা মানের দুসাই রিসোর্ট এন্ড স্পা-তে স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন করেন সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের জ্যেষ্ঠপুত্র, স্মৃতি পরিষদের প্রধান পৃষ্ঠপোষক, সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা বিএনপি’র সভাপতি এম নাসের রহমান। পরিষদের সভাপতি সৈয়দ তৌফিক আহমদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল মতিন চৌধুরীর সঞ্চালনায় প্রয়াত মন্ত্রীর সফল কর্মময় জীবন নিয়ে আলোচনায় অংশ নেন প্রবীণ আইনজীবী বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট মুজিবুর রহমান মুজিব, অ্যাডভোকেট বাবু সুনীল কুমার দাশ, জেলা বিএনপি’র সহ-সভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র ফয়জুল করীম ময়ূন, ব্যাংকার আবু তাহের অ্যাডভোকেট। অনুষ্ঠানে সিলেট বিভাগসহ পুরো বালাদেশজুড়ে মন্ত্রীর অবদানের কথা স্বীকার করে বক্তারা বলেন, এ রকম একজন সত্যিকারের দেশপ্রেমিক ও সমাজসেবক এদেশে পাওয়া দুস্কর। তার দেখানো পথেই এদেশের অর্থনীতির উন্নতির পথ সুগম হচ্ছে। এই বিশ্ববরেণ্য অর্থনীতিবিদ এর কর্মজীবন এদেশের অর্থনীতির ভিতকে মজবুত করেছে। তার এমন অবদানে আজ দেশ ও জাতি অর্থনীতিতে সেই সুফল পাচ্ছে।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ভিপি মিজানুর রহমান মিজান, সহ-সভাপতি আব্দুল মুকিত, মোয়াজ্জেম হোসেন মাতুক, স্মৃতি পরিষদের সহ-সভাপতি মো. বদরুল আলম, ডা. দিলশাদ পারভীন, যুগ্ম সম্পাদক আমিন উদ্দিন বাবু, আজিজুর রহমান মনির, কোষাধ্যক্ষ সাংবাদিক সৈয়দ হুমায়েদ আলী শাহিন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সাংবাদিক মু. ইমাদ উদ-দীন, সদস্য অ্যাডভোকেট হাফেজ আব্দুল আলীম, অ্যাডভোকেট সালেহ আহমদ রিপন, শেকুল ইসলাম তালুকদার প্রমুখ। অনুষ্ঠানে জেলার রাজনীতিবিদ, পেশাজীবী, ব্যবসায়ী, চিকিৎসক, সাংবাদিকসহ নানা শ্রেণী ও পেশার লোকজন অংশগ্রহণ করেন।   

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর