× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৫ জানুয়ারি ২০২১, শুক্রবার

বিশ্ববিদ্যালয়ের চেক চুরি করে আড়াই লাখ টাকা উত্তোলন

শিক্ষাঙ্গন

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি
(২ মাস আগে) নভেম্বর ১১, ২০২০, বুধবার, ৮:১৫ পূর্বাহ্ন

গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) আবারও চুরির ঘটনা ঘটেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ থেকে চেক চুরি করে গোপালগঞ্জ জেলা শহরের অগ্রণী ব্যাংকের একটি শাখা থেকে টাকা উত্তোলন করা হয়েছে বলে জানান বিভাগটি চেয়ারম্যান ড. হাসিবুর রহমান। পরবর্তীতে সিসিটিভি ফুটেজের মাধ্যমে চোর শনাক্ত করতে সক্ষম  হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ধরা পড়ার পর টাকা ফেরত দিয়েছে চোর।
জানা গেছে মাস্ক, টুপি এবং ফেসশিল্ড পরে চেক চুরি করে ব্যাংক থেকে আড়াই লাখ টাকা উত্তোলন করে নেওয়া হয়।  রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি ড. হাসিবুর রহমান বলেন, গত ৩রা নভেম্বর হঠাৎ ফোনে মেসেজ আসে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে দুই লাখ ৫০ হাজার টাকা উত্তোলন করা হয়েছে। পরে গোপালগঞ্জের অগ্রণী ব্যাংকের  শাখায় খোঁজ নিয়ে ব্যাংক কর্তৃপক্ষের সহায়তায় সিসিটিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করা হয় এবং প্রশাসনের সহায়তা চাওয়া হয়। প্রশাসনের মাধ্যমে চোর শনাক্তের পর গত চার নভেম্বর এবং নয় নভেম্বর দুই ধাপে টাকাগুলো আদায় করা সম্ভব হয়েছে। তবে তিনি চোরের নাম প্রকাশ করেননি। তিনি বলেন, চেক চুরির টাকাগুলো কে উত্তোলন করেছিলেন সেটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বলতে পারবে।
চেক ভাঙানো সভায় ব্যাংক কর্তৃপক্ষের কিছুটা অবহেলা ছিল। এ বিষয়ে ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে চিঠিও দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. মো. নূরউদ্দিন আহমেদ বলেন, টাকাগুলো উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ থেকে একটি অভিযোগপত্র আমার দপ্তরে এসেছে। আলোচনা ও অনুমোদনের জন্য উপাচার্যের দপ্তরে সেটা উপস্থাপন করা হবে। উল্লেখ্য যে, এর আগেও বিশ্ববিদ্যালয়ে কয়েক দফায় কম্পিউটার চুরি, অফিসার্স কোয়ার্টারে চুরিসহ বেশ কয়েকটি চুরির ঘটনা ঘটেছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর