× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, শনিবার

উইঘুর নিয়ে পোপের অভিযোগ উড়িয়ে দিল চীন

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) নভেম্বর ২৫, ২০২০, বুধবার, ৩:৫৪ পূর্বাহ্ন

সিনজিয়াং প্রদেশে সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলিমদের সঙ্গে অমানবিক আচরণ করা হচ্ছে বলে পোপ ফ্রাঁসিস যে সমালোচনা করেছে তাকে উড়িয়ে দিয়েছে বেইজিং। রোমান ক্যাথলিক চার্চ সম্প্রতি আন্তর্জাতিক একটি গ্রুপের সঙ্গে যুক্ত হয়। তারা একটি নতুন বইয়ে উইঘুর সম্প্রদায়কে একটি নিষ্পেষিত সম্প্রদায় বলে বর্ণনা করেছেন। এ ছাড়া দীর্ঘ সময় ধরে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার বিষয়ক সম্প্রদায় ও বিশ্ব সম্প্রদায় চীন সরকারের সমালোচনা করে আসছে। তারা দাবি করছে, কমপক্ষে ১০ লাখ উইঘুর মুসলিমকে আটক করে রেখেছে চীন সরকার। তবে চীন সরকারের বক্তব্য এসব মানুষকে নতুন করে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে বিভিন্ন শিবিরে। এমন সময় পোপ ফ্রাঁসিসের ওই সমালোচনার জবাবে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, পোপের অভিযোগ ভিত্তিহীন। ওই বইটির নাম ‘লেট আস ড্রিম: দ্য পাথ টু এ বেটার ফিউচার’।
এতে পোপ ফ্রাঁসিস লিখেছেন, মাঝে মাঝেই আমি নির্যাতিত রোহিঙ্গা, উইঘুর ও ইয়াজিদি সম্প্রদায়ের কথা চিন্তা করি। উল্লেখ্য, এই প্রথম উইঘুর সম্প্রদায়ের কথা উল্লেখ করেছেন পোপ। জবাবে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান বলেছেন, বেইজিং সব সময়ই জাতিগত সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের আইনগত সমঅধিকার সুরক্ষা করে আসছে।  

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর