× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২১ জানুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার
আমন কাটায় ব্যস্ত চাষিরা

শীষে ধানের পরিমাণ কম ক্ষতি ইঁদুর ও কচুরিপানায়

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, মৌলভীবাজার থেকে
২৬ নভেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার

ধুম পড়েছে আমন কাটার। তাই রাত দিন চাষিরা ব্যস্ত ধান কাটা, মাড়াই ও ঝাড়াইয়ে। জেলার হাকালুকি, হাইল হাওর ও কাউয়াদীঘি হাওর বেষ্টিত মৌলভীবাজারে মাঠ জুড়ে পাকা আধপাকা আমন ধান। ধানের মাঠে চাষিদের উপস্থিতিতে রোপা আমনকে ঘিরে এক অন্য রকম পরিবেশ বইছে এখন। চাষিরা জানালেন এ বছর ফলন ভালো হলেও ইঁদুর, কচুরিপানা আর হঠাৎ বৃষ্টিতে ফলনের ক্ষতি হয়েছে। এ কারণে গোলায় ধান উঠছে কম। রাজনগর উপজেলার কাউয়াদিঘী হাওর এলাকার পুকুরিয়া বিল পাড়ের সুনামপুর গ্রামের কয়েকজন কৃষক জানান- এবার ধান ভালো হয়েছে। তবে শীষে ধানের পরিমাণ কম।
উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের শাহাপুর গ্রামের চাষিরা জানান হাওর পাড়ের ঘাগটিবিল ও গোয়ালী বিলের পাশে ২ থেকে আড়াইশ’ বিঘা আমান চাষবাদ হয়েছিল। ৭০ থেকে ৮০ শতাশ জমির ধান ইঁদুর কেটে শেষ করেছে। আমন অথবা বোরো ধান চাষাবাদে বর্তমানে ইঁদুর ও কচুরিপানা একটা বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই শতভাগ ধান তুলতে হলে হাওর থেকে ইঁদুরকে যেকোনো মূল্যে হঠাতে হবে। মনু প্রকল্পের আওতাধীন মৌলভীবাজার সদর ও রাজনগর উপজেলায় এবার প্রায় ১১ হাজার হেক্টর জমিতে রোপা আমন চাষাবাদ হয়েছে। কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তর জানিয়েছে এবার মৌলভীবাজার জেলায় ১ লাখ ১ হাজার ৪শ’ হেক্টর জমিতে রূপা আমন চাষাবাদ হয়েছে। যার লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১ লাখ ৪শ’ হেক্টর। সব মিলিয়ে জেলায় এবার লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১২৮০ হেক্টর বেশি জমি আবাদ হয়েছে। মৌলভীবাজার কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ লুৎফুল বারী বলেন, শুধু কাউয়াদিঘী ও তৎসংলগ্ন মনু প্রকল্পে ১১ হাজার হেক্টর জমিতে আমন চাষ হয়। এবার ৬শ’ হেক্টর বেশি জমি আবাদ হয়েছে মনু প্রকল্পে। মনু প্রকল্পে ৫২ হাজার ৯শ’ টন ধান পাওয়া যাবে এবার।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর