× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৭ জানুয়ারি ২০২১, বুধবার

মাইকেল ফ্লিনকে ক্ষমা করে দিলেন ট্রাম্প

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(২ মাস আগে) নভেম্বর ২৬, ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১০:০০ পূর্বাহ্ন

২০১৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়া কানেকশন নিয়ে এফবিআইয়ের কাছে মিথ্যা বলার কারণে বরখাস্ত হয়েছিলেন সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিন। কিন্তু ক্ষমতার মেয়াদের শেষের দিকে এসে তাকে ক্ষমা করে দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, এই ক্ষমা করে দেয়া তার প্রতি বড় সম্মান। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি। যুক্তরাষ্ট্রের ওই নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ ইস্যুতে আইন মন্ত্রণালয় যেসব ব্যক্তির বিরুদ্ধে তদন্ত করছিল, তার মধ্যে অভিযুক্ত হয়েছিলেন ট্রাম্পের এই উপদেষ্টা। তিনি ২০১৭ সালে স্বীকার করেন যে, রাশিয়ার দূতের সঙ্গে তার যোগাযোগ ছিল। এ বিষয়ে তিনি এফবিআইকে মিথ্যা বলেছেন। পরে অবশ্য তার বক্তব্য প্রত্যাহার করেন।
বুধবার তাকে ক্ষমা করে দিয়ে হোয়াইট হাউজ থেকে বলা হয়েছে, এই ক্ষমতার মাধ্যমে একজন নিরপরাধ মানুষ পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ ও নিষ্ঠুরতার অভিযোগ থেকে মুক্তি পাবেন। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ২০১৬ সালের নির্বাচনের ফলকে উল্টে দিতে সমন্বিত উদ্যোগের মাধ্যমে পক্ষপাতিত্বমূলক সরকারি কর্মকর্তাদের শিকারে পরিণত হয়েছিলেন মাইকেল ফ্লিন। জবাবে ফ্লিন একটি টুইট করেছেন। তাতে যুক্তরাষ্ট্রের পতাকার একটি ইমোজি ব্যবহার করেছেন। আর তুলে দিয়েছেন বাইবেলের একটি অনুচ্ছেদ। তার সমর্থকরা তাকে রাজনৈতিক প্রতিশোধের শিকার হিসেবে দেখে থাকেন। তারা মনে করেন, ওই সময় ক্ষমতা থেকে বিদায় নেয়া যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা প্রশাসন ট্রাম্পের আসন্ন প্রশাসনকে অবৈধ প্রমাণ করার চেষ্টা করেছিল। এক্ষেত্রে তারা অপ্রমাণিত রাশিয়ান কানেকশন এনেছিল বলে তাদের বিশ্বাস। এ নিয়ে ২২ মাস ধরে তদন্ত চলে। আইন মন্ত্রণালয় ২০১৯ সালে এর শেষ করে। তাতে বলা হয়, ২০১৬ সালের নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বা তার কোনো সহযোগির রাশিয়া কানেকশনের কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Kazi
২৬ নভেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৩:০৭

Trump should apologize for unjust dismissal of Michael Flynn. Why has to forgive ? Flynn did not commit any offence.

অন্যান্য খবর