× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২২ জানুয়ারি ২০২১, শুক্রবার

হাকালুকি হাওরের খাল-বিল থেকে মাছ লুটের প্রতিবাদে মানববন্ধন

বাংলারজমিন

বড়লেখা (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি
২৯ নভেম্বর ২০২০, রবিবার

বড়লেখায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও মাধবকুণ্ড মৎস্যজীবী সমবায় সমিতি হাকালুকির সর্ববৃহৎ জলমহাল গুটাউরা হাওর খাল (বদ্ধ) বিল থেকে প্রতিদিন লাখ লাখ টাকার মাছ লুট করছে। সরকারি জলমহালের মাছ লুটের প্রতিবাদে গতকাল দুপুরে হাওরপারের কানুনগো বাজারে এলাকাবাসী, বিভিন্ন মৎস্যজীবী সমিতির নেতৃবৃন্দ, মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তানগণ মানববন্ধন করেছেন।
হাওর খাল (বদ্ধ) জলমহালের ওপর সোনার বাংলা মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির হাইকোর্টে রিট মামলা নং-১৫৬১/১৮ এর মাধ্যমে মাধবকুণ্ড মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির ইজারা বাতিল ও আপিল মামলায় উচ্চ আদালত কর্তৃক স্থিতাবস্থা জারির পরও আইন লংঘন করে প্রভাবশালীরা বাঁধ কেটে পানি কমিয়ে মাছ লুট করছে।
মানববন্ধন সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বড়লেখা সোনার বাংলা মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা এখলাছুর রহমান, সহ-সভাপতি আব্দুল খালিক বাদল, সাধারণ সম্পাদক সাহাব উদ্দিন, মৎস্যজীবী নেতা জসিম উদ্দিন, ফয়সল আহমদ, তাজুল ইসলাম, দুদু মিয়া, আব্বাস উদ্দিন প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, হাকালুকির মৎস্যসম্পদ জলদস্যুদের হাতে জিম্মি। সোনার বাংলা মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মৎস্যজীবী সমিতি জলমহালটির বৈধ ইজারাদার। হাওর খাল বিলের মাছ আহরণের ওপর উচ্চ আদালতের স্থিতাবস্থা রয়েছে। আদালতে এ বিষয়ে আগামী ১০ই ডিসেম্বর শুনানির দিন ধার্য রয়েছে। কিন্তু আদালত অমান্য করে মাধবকুণ্ড মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির দস্যুরা মাছ লুট করছে। তারা মাছ লুট বন্ধ করতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।
 
 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর