× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৭ মার্চ ২০২১, রবিবার

নাক নিয়ে নাকাল! পঞ্চাশ বছর ধরে আটকে থাকা কয়েন ঘটাল মহা বিপত্তি

রকমারি


৩০ নভেম্বর ২০২০, সোমবার

এমনও হয়? নাকের মধ্যে কয়েন (Coin) ঢুকিয়ে ফেলেছিল এক শিশু। এমন ঘটনা তো আকছার ঘটে। তারপর তা নিয়ে ভোগান্তির শিকার হতে হয় অভিভাবকদেরও। কিন্তু এমন কি হতে পারে, কোনও শিশু ওই কম্মো করে পরে তা বেমালুম ভুলে গেল? আর সেই কয়েনও লক্ষ্মীছানার মতো চুপ করে পড়ে রইল নাকের মধ্যে! ঠিক এমনটাই ঘটেছে রাশিয়ার (Russia) এক ব্যক্তির জীবনে।
ওই ভদ্রলোকের এখন বয়স ৫৯। ছ’বছর বয়সে তিনি নাকের মধ্যে ঢুকিয়ে ফেলেছিলেন একটি আস্ত কয়েন। আর তারপর তা এক্কেবারে ভুলেও যান। কিন্তু এতদিন পরে আবার কী করে তা মনে পড়ল? আসলে শরীরই জানান দিয়েছিল। ক’দিন ধরেই নিঃশ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছিল তাঁর।
তারপর চিকিৎসকদের কাছে যেতেই সামনে এল পুরনো অতীত। জানা গেল, ৫৩ বছর আগের সেই বিস্মৃত কয়েনই সমস্যা তৈরি করছে।
আর তখনই এক ধাক্কায় পুরনো সেই স্মৃতি জেগে ওঠে। প্রবীণ ব্যক্তিটির মনে পড়ে যায়, ছোট্টবেলায় কয়েনটি নাকের মধ্যে ঢুকিয়ে ফেলার পরও মায়ের বকুনির ভয়ে টুঁ শব্দটিও করেননি তিনি। তারপর নিজেও ভুলে গিয়েছেন সবটাই। সম্প্রতি ডান নাক দিয়ে শ্বাস নিতে অসুবিধা হচ্ছিল তাঁর। হাসপাতালে নাসারন্ধ্রের স্ক্যান করতেই চক্ষু চড়কগাছ হয়ে যায় চিকিৎসকদের। দেখা যায়, আটকে থাকা কয়েনটিকে ঘিরে রীতিমতো তৈরি হয়ে গিয়েছে পাথর!
তবে শেষ ভাল যার, সব ভাল তার। এন্ডোস্কপি করে সেই পাথর ও কয়েনটি বের করে আনতে সক্ষম হয়েছেন চিকিৎসকরা। হাসপাতাল থেকে ছেড়েও দেওয়া হয়েছে ওই ব্যক্তিকে। এখন আবার স্বাভাবিক ভাবে শ্বাস নিতে পারছেন তিনি। সেই সঙ্গে চলছে স্মৃতিচারণ। ছোটবেলাটার সেই মুহূর্ত যেন তাঁকে নতুন করে মনে করিয়ে দিয়েছে, জীবনের ‘ধন’ কিছুই যায় না ফেলা।

সূত্র- সংবাদ প্রতিদিন 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর