× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৮ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার

অপেক্ষার অবসান

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার
২ ডিসেম্বর ২০২০, বুধবার

‘হাজার বছর ধরে’ চলচ্চিত্রের টুনি চরিত্রটি অভিনেত্রী শশীর ক্যারিয়ারের টার্নিং পয়েন্টই বলা চলে। এই চলচ্চিত্রের মাধ্যমেই তিনি দর্শকদের একবারে কাছাকাছি পৌঁছে যান। যদিও এরপর তাকে মাত্র একবার বড় পর্দায় দেখা গিয়েছিল। টুনির মতো ভালো চরিত্র না পাওয়ায় আর চলচ্চিত্রে অভিনয় করেননি। দীর্ঘদিন ধরে সেই আক্ষেপ বুকে নিয়ে কাজ করে যাচ্ছিলেন। এর আগে জানিয়েছিলেন তিনি নিজেও আবার চলচ্চিত্রে ফেরার জন্য অপেক্ষা করছেন। তবে সেটা হতে হবে মানসম্মত গল্প ও মনে দাগ কাটবে এমন চরিত্র দিয়ে। অবশেষে সেই অপেক্ষার অবসান হয়েছে।
শশী তার মনের মতো চরিত্র পেয়ে গেছেন। এমনকি শুটিংও শুরু করে দিয়েছেন। সোলায়মান জুয়েল পরিচালিত সিনেমাটির নাম ‘ছায়াবাজি’। এতে কেন্দ্রীয় চরিত্রেই অভিনয় করছেন শশী। এই অভিনেত্রী বলেন,  ‘ছায়াবাজি’ মূলত একটি সাইকোলজিক্যাল থ্রিলার। রোমাঞ্চকর একটি চরিত্রে অভিনয় করছি। এমন একটি চরিত্রের জন্য এতোদিন অপেক্ষায় ছিলাম। চরিত্র ও গল্প নিয়ে বিস্তারিত বলতে চাই না। তাহলে দর্শকদের আগ্রহ নষ্ট হয়ে যেতে পারে। ‘ছায়াবাজি’ সিনেমাতে শশীর সঙ্গে আরো দেখা যাবে মডেল-চিত্রনায়ক সাঞ্জু জন ও লাক্স তারকা মৌসুমি হামিদকে। চলচ্চিত্রে ফেরার আগে শশী মূলত নাটক-বিজ্ঞাপনের কাজ নিয়েই ব্যস্ত ছিলেন। সর্বশেষ ২০০৭ সালে তাকে খিজির হায়াত খানের ‘অস্তিত্বে আমার দেশ’ চলচ্চিত্রে দেখা গেছে। এতে তিনি বীরজায়া মিলি রহমানের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর