× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৯ মার্চ ২০২১, মঙ্গলবার

চসিক নির্বাচনের ঘাড়ে করোনার গরম নিঃশ্বাস

দেশ বিদেশ

ইব্রাহিম খলিল, চট্টগ্রাম থেকে
২ জানুয়ারি ২০২১, শনিবার

করোনার ভয়ে স্থগিত করা হয়েছিল চসিক নির্বাচন। সেই করোনার গরম নিঃশ্বাস এখন চসিক নির্বাচনের ঘাড়ে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের মাঝে আগামী ২৭শে জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে চসিক নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। শীতের দাপটের সঙ্গে ডিসেম্বর মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে চট্টগ্রামে ফের করোনা সংক্রমণ শনাক্ত বাড়ছে। এ নিয়ে স্বাস্থ্য বিভাগ ও সচেতন মহলে উদ্বেগ-আতঙ্ক বিরাজ করলেও সাধারণ মানুষের মাঝে কোনো অনুভূতিই নেই।
চট্টগ্রাম মহানগরীর সড়ক, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও অলিগলির কারো মাঝে এখন করোনার আতঙ্ক নেই।
অথচ করোনায় নগর আওয়ামী লীগের ৬৪ নেতাকর্মীর মৃত্যু হয়েছে বলে তথ্য দিয়েছেন নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও চসিকের সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন। তিনিও সম্প্রতি সুস্থ হয়েছেন করোনা সংক্রমণ থেকে।

নির্বাচন শেষ করার পক্ষে আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী ও বীর মুক্তিযোদ্ধা রেজাউল করিমও। তিনি  বলেন, করোনা সংক্রমণের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাচন হয়েছে। বিশ্বের আরো বহু দেশে নির্বাচন হয়েছে, ক্ষমতার বদলও ঘটেছে। দেশেও বিভিন্ন পৌরসভা ও উপনির্বাচন হয়েছে। একইভাবে চসিক নির্বাচনও হবে।
শুধু মেয়র প্রার্থী নয়, কাউন্সিলর প্রার্থীরাও নির্বাচন অনুষ্ঠানের পক্ষে। এর মধ্যে টিফিন ক্যারিয়ার প্রতীকে নগরীর ২৫নং রামপুরা ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবদুস সবুর লিটন, ১২নং সরাইপাড়া ওয়ার্ডের নুরুল আমিন, ৭নং পশ্চিম ষোলশহর ওয়ার্ডের মোবারক আলীসহ অধিকাংশ প্রার্থী রয়েছেন।  
আবদুুস সবুর লিটন বলেন, করোনায় জীবন থামিয়ে রাখার সুযোগ নেই। করোনা থেকে রক্ষার উপায়গুলো মেনে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। করোনা থেকে বাঁচার জন্য প্রধানমন্ত্রী মাস্ক ব্যবহারের ওপর জোর দিয়েছেন। এই একটি জিনিস মানলে করোনা সংক্রমণ থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব। এ অবস্থায় মুখে মাস্ক লাগিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন অনায়াসে সম্ভব। তিনি বলেন, করোনা সংক্রমণের চেয়েও সাধারণ মানুষ ব্যবসা-বাণিজ্য, চাকরি-বাকরিসহ বিভিন্ন কাজে সনদ সংগ্রহের ভোগান্তিতে আছে। যা করোনা সংক্রমণের চেয়েও অনেক কষ্টের। এই কষ্ট থেকে রেহাই দিতে দ্রুত নির্বাচন সম্পন্ন করা উচিত।
অন্যদিকে বিএনপি মনোনীত প্রার্থীদের ভিন্নমত। তাদের মতে, নির্বাচনের চাইতেও করোনা সংক্রমণ থেকে মানুষ বাঁচানো জরুরি। কিন্তু চসিক নির্বাচন এমন এক সময়ে হতে যাচ্ছে যখন চট্টগ্রাম শহরে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ চলছে। প্রতিদিন ১৫০০-১৬০০ নমুনা পরীক্ষায় ২৫০-৩০০ পর্যন্ত করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হচ্ছে। বলতে গেলে করোনার গরম নিঃশ্বাস চলছে চসিক নির্বাচনের ঘাড়ে।
এ বিষয়ে বিএনপি’র মেয়র প্রার্থী চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি’র সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, করোনা শনাক্তের পাশপাশি চট্টগ্রামে নিয়মিত মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। মানুষ না বাঁচলে নির্বাচন করে কি হবে। আমরা তো মানুষের জন্য রাজনীতি করি। তাই নির্বাচনের চেয়েও করোনা সংক্রমণ থেকে মানুষকে রক্ষার উদ্যোগ নেয়া জরুরি।
চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন শেখ ফজলে রাব্বিও বলেছেন একই কথা। তিনি বলেন, করোনার শুরুতে যেসব স্বাস্থ্যবিধি মানা হয়েছিল চট্টগ্রামে এখন তার ছিটেফোঁটাও মানা হচ্ছে না। ফলে চট্টগ্রামে নীরবে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ।
তথ্যমতে, সর্বশেষ ২০১৫ সালের ২৮শে এপ্রিল চসিক নির্বাচন হয়। যার মেয়াদ শেষ হয় গত ৫ই আগস্ট। সে হিসেবে গত ২৯শে মার্চ এই সিটির ভোটগ্রহণের তারিখ ঘোষণা করে ইসি। তবে এর আগে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ায় এই নির্বাচন স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির মধ্যে ২৭শে জানুয়ারি ফের ভোট গ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করা হয়। তফশিল অনুযায়ী ৮ই জানুয়ারি থেকে আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু হবে।
এ বিষয়ে চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মুনীর হোসাইন বলেন, নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী চসিক নির্বাচনের ভোট অনুষ্ঠিত হবে। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই ভোটগ্রহণের যাবতীয় প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর